Home / সর্বশেষ / বিতর্কিত নো বলটি কয়েকবার রিপ্লে দেখে নতুন করে যে তথ্য দিলেন হগ

বিতর্কিত নো বলটি কয়েকবার রিপ্লে দেখে নতুন করে যে তথ্য দিলেন হগ

ভারত পাকিস্তান ম্যাচ মানেই টানটান উত্তেজনা কিন্তু সেই উত্তেজনায় আজ আগুন ধরিয়ে দিয়েছে ‘নো বল বিতর্ক’। আজ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল ভারত এবং পাকিস্তান যেখানে শেষ মুহূর্তে টানটান উত্তেজনায়

একদম শেষে বলে ৪ উইকেটে জয়লাভ করেছে ভারত। নাটকীয় ওই শেষ ওভারে নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। শেষ ওভারে ভারতের জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ১৬ রান।

বোলার মোহাম্মদ নওয়াজ। প্রথম বলেই ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ৩৭ বলে ৪০ রান করা হার্দিক। তৃতীয় বলটি ছিল ফুলটস।কোমর সমান উচ্চতার ফুলটস বলটি ডিপ স্কয়ার লেগ দিয়ে ছক্কা মারেন কোহলি।

আম্পায়ার ‘নো বল’ ডেকে বসেন। সাথে সাথে আপত্তি জানান পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা। যদিও পাকিস্তানিদের সেই আপত্তি ধোপে টেকেনি। ফিল্ড আম্পায়ার নিজের সিদ্ধান্তে অনড় থাকেন।

কারণ আইসিসির আইন অনুযায়ী সেটা নো বল। পরের বলে ফ্রি হিট। কিন্তু বিশাল এক ওয়াইড দিয়ে বসেন নওয়াজ। ৩ বলে দরকার হয় পাঁচ রানের।

ফ্রি হিটের বৈধ বলটিতে বোল্ড হয়ে যান কোহলি। কিন্তু ফ্রি হিট হওয়ায় তিনি বেঁচে যান। বাড়তি ফায়দা হিসেবে দিনেশ কার্তিকের সঙ্গে

তিনবার প্রান্ত বদল করে ফেলেন। ২ বলে চাই ২ রান। পঞ্চম বলে স্টাম্পড হয়ে যান দিনেশ কার্তিক (১)। শেষ বলে প্রয়োজন ২ রানের।

আবারও ওয়াইড দিয়ে বসেন নওয়াজ। স্কোর সমান সমান। অবশেষে শেষ বলে সিঙ্গেল নিয়ে ভারতকে ৪ উইকেটে জিতিয়ে দেন নতুন ব্যাটার রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

ম্যাচ শেষে সোশ্যাল সাইটে সেই নো বল নিয়ে শুরু হয়েছে তুমুল আলোচনা। এক পক্ষের মতে, সেটি নো বল ছিল না। অন্য পক্ষ আম্পায়ারের সিদ্ধান্তকেই সঠিক দাবি করছে। ভারত-পাকিস্তানের ম্যাচ যেন ফিরিয়ে নিয়ে যায় ২০১৫ ওয়ানডে বিশ্বকাপে।

সেই আসরের কোয়ার্টার ফাইনালে বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচে রুবেল হোসেনের একটি ‘নো বল’ ঘিরে তুমুল বিতর্ক হয়েছিল। টিভি রিপ্লেতে স্পষ্ট দেখা গিয়েছিল, সেটি নো বল নয়। ম্যাচটিতে শেষ পর্যন্ত হেরে যায় বাংলাদেশ। এবার আরো একটি বিশ্বকাপে সৃষ্টি হলো ‘নো বল’ বিতর্ক

Check Also

পেনাল্টি শুট আউটে কাজে লাগিয়ে স্পেনকে হারিয়ে দিল মরক্কো

শক্তির বিচারে পিছিয়ে থাকলেও মরক্কোর মাঠের খেলায় পাওয়া গেলো না সেই ছাপটুকুও। কাউন্টার অ্যাটাকে বেশ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.