পাপন, মাশরাফি নাকি সাকিব ভোটের লড়াইয়ে এগিয়ে থাকলো কে ?

বাংলাদেশ ক্রিকেটের পরিচিত মুখ নাজমুল হাসান পাপন, মাশরাফি বিন মুর্তজা এবং সাকিব আল হাসান । দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশের ক্রিকেট অঙ্গনের তিন হেভিওয়েট তারকা হাঁকিয়েছেন বিশাল বিশাল ছক্কা । নাজমুল হাসান পাপন, মাশরাফি বিন মুর্তজা, এরপর সাকিব আল হাসান। না, শুধু রাজনীতির অভিজ্ঞতা দিয়ে এই ক্রমবিচার নয়, একইসাথে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট সংখ্যা আর নিকটতম প্রার্থীর সাথে ভোটের ব্যবধানও। আসুন জেনে নেই তাদের মধ্যে নির্বাচনে কে কোন দিক দিয়ে এগিয়ে ?

প্রথমেই আসা যাক ভোটের হিসেবে। কিশোরগঞ্জ-৬ আসনে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন ভোট পেয়েছেন ১৯৮১৫৫টি। নড়াইল-২ আসনে সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা পেয়েছেন ১৮৯১০২টি ভোট। মাগুরা-১ আসন থেকে প্রথমবার প্রার্থিতা করা জাতীয় দলের বর্তমান অধিনায়ক সাকিব আল হাসান পেয়েছেন ১৮৫৩৮৮টি।

তবে মোট ভোটারের শতকরা হারে পাপন নন, সবচেয়ে এগিয়ে মাশরাফি। সাকিব এক্ষেত্রেও সবচেয়ে পিছিয়ে। কিশোরগঞ্জ-৬ সংসদীয় এলাকায় মোট ভোটার ৩৯৯২৪৪ জন। নাজমুল হাসান পাপনের ভোট পাওয়ার হার ৪৯.৭ শতাংশ। নড়াইল-২ আসনে ৩৬৫৭৩৭ ভোটারের মধ্যে মাশরাফিকে ভোট দিয়েছেন ৫১.৭০ ভাগ ভোটার। আর সাকিবকে নির্বাচিত করতে আসনের ৪৬ শতাংশ ভোটার ভোট দিয়েছেন নৌকায়, যে আসনে মোট ভোটার ৪০০৪৯১।

এবার আসা যাক জয়ের ব্যবধানে। নৌকা প্রতীক নিয়ে তিন প্রার্থীই পেয়েছেন বিশাল জয়। তবে জয়ের ব্যবধান সবচেয়ে বড় নাজমুল হাসান পাপনের। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ভোট পেয়েছেন ৩০৬৫টি, পাপন জিতেছেন ১৯৫০৯০ ভোটের ব্যবধানে। মাশরাফির নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ৩০৪১ ভোট পেয়েছেন যার ফলে মাশরাফি জিতেছেন ১৮৬০৬১ ভোটের ব্যবধানে। সাকিব ভোটের ব্যবধানেও পিছিয়ে, যদিও প্রথমবারই জিতেছেন ১৭৯৩৯৪ ভোটের ব্যবধানে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীর ভোট ৫৯৯৪টি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *