Home / সর্বশেষ / ম্যাচ হারলেও আফগানিস্তানের একজন ক্রিকেটারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ অধিনায়ক সাকিব

ম্যাচ হারলেও আফগানিস্তানের একজন ক্রিকেটারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ অধিনায়ক সাকিব

এশিয়া কাপের পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন শ্রীলংকার পর বাংলাদেশকেও হারাল আফগানিস্তান। টানা দুই ম্যাচে জিতে ৪ পয়েন্ট নিয়ে ‘বি’ গ্রুপের সেরা দল হিসেবেই সবার আগে সুপার ফোরে খেলা নিশ্চিত করল আফগানিস্তান।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে হেরে খাদের কিনারায় উপনীত বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার নিজেদের পরের ম্যাচে শ্রীলংকার মুখোমুখি হবে টাইগাররা।
সেই ম্যাচটি দুই দলের জন্যই অঘোষিত ফাইনালের মতো।

সেই ম্যাচে যারা জিতবে তারা আফগানিস্তানের সঙ্গে গ্রুপের দ্বিতীয় দল হিসেবে সুপার ফোরে খেলবে। মঙ্গলবার আরব আমিরাতের শারজা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ব্যাট করে ৭

উইকেট হারিয়ে ১২৭ রান করে বাংলাদেশ। দলের হয়ে ৩১ বলে সর্বোচ্চ ৪৮ রান করে অপরাজিত থাকেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। এছাড়া ২৫ রান করেন সাবেক অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৪.১ ওভারে দলীয় ১৫ রানে সাকিবের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন আফগান ওপেনার রহমানউল্লাহ গুরবাজ। ৯.২ ওভারে ৪৫ রানে অন্য ওপেনার হজরতউল্লাহ জাজাইকে আউট করেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।

১৩তম ওভারে প্রথমবার বোলিংয়ে এসেই ওভারের শেষ বলে আফগান অধিনায়ক মোহাম্মদ নবিকে এলবিডব্লিউ আউট করেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। ১৩ ওভারে ৬২ রানে ৩ উইকেট হারায় আফগানিস্তান।

এরপর নজিবুল্লাহ জাদরানকে সঙ্গে নিয়ে ৩৩ বলে ৬৯ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছেদেন ইবরাহিম জাদরান। ১৭ বলে ৪৩ রান করে অপরাজিত থাকেন নজিবুল্লাহ।

ম্যাচের পর এই ব্যাটসম্যানকেই কৃতিত্ব দিয়েছেন সাকিব। তিনি বলেন, “আমরা ১৪-১৫ ওভার পর্যন্ত ম্যাচে ছিলাম। কৃতিত্ব আফগানিস্তানের। মোসাদ্দেক ভালো করেছে।

কিন্ত আমাদের ব্যাটসম্যানদের আরও অবদান রাখা দরকার ছিল। আমরা জানতাম নাজিবুল্লাহ বিপজ্জনক ব্যাটসম্যান। যখন ৬০ রান প্রয়োজন ছিল, তখন আমরা ম্যাচে ছিলাম। কিন্তু কৃতিত্ব নাজিবুল্লাহর।”

Check Also

ওপেনিংয়ে নতুন মুখ রেখে যেমন হতে পারে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের বাংলাদেশের একাদশ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে শেষবারের মতো পরীক্ষা নিরীক্ষা সুযোগ পাচ্ছে টিম ম্যানেজমেন্ট। বিশ্বকাপের আগে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.