Home / সর্বশেষ / সেভেন আপ থ্রিলারে বাংলাদেশকে হারিয়ে শিরোপা জিতলো ভারত

সেভেন আপ থ্রিলারে বাংলাদেশকে হারিয়ে শিরোপা জিতলো ভারত

সাফ অনূর্ধ্ব-২০ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ভারতের কাছে ৫-২ গোলের ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশ। আর তাতেই রানার্সআপ হয়ে টুর্নামেন্ট শেষ করতে হলো বাংলাদেশকে।

নির্ধারিত ৯০ মিনিটে ২-২ গোলে সমতায় থাকার পর খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। আর অতিরিক্ত সময়ে আরও তিন গোল হজম করে বাংলাদেশ। এতেই ৫-২ গোলের ব্যবধানে হারে বাংলাদেশ দল।

ভুবনেশ্বরের কালিংগা স্টেডিয়ামে শুক্রবার সাফ অনূর্ধ্ব-২০ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে প্রথম মিনিটেই আক্রমণ করে ভারত। বক্সের বেশ বাইরে থেকে হিমাংশু জাংরার জোরাল শট আটকালেও গ্লাভসে জমাতে পারেননি মোহাম্মদ আসিফ।

আগলা বলের নিয়ন্ত্রণ নিতে ছুটে যান গুরক্রিত সিং ও আসিফ দুজনেই। আসিফের চার্জে গুরক্রিত পড়ে গেলে পেনাল্টি পায় ভারত। স্পটকিক থেকে তিনিই গোল করে ভারতকে ১-০ গোলের লিড এনে দেন।

ম্যাচের শুরুতেই গোল হজম করে কিছুটা ছন্নছাড়া হয়ে যায় বাংলাদেশ দল। তবে সময়ের সঙ্গে নিজেদের গুছিয়ে নিয়ে আক্রমণ সাজাতে শুরু করে বাংলাদেশ। ম্যাচের ১০ মিনিটের মাথায় রফিকুল ইসলামের শট দূরের পোস্টের বাইরে দিয়ে যায়।

তবে প্রথমার্ধের শেষ দিকে এসে সমতায় ফেরে বাংলাদেশ। দারুণ স্কিলে ভারতের ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন রফিকুল। এরপর তার পাস প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড়ের পায়ে লেগে চলে যায় রাজনের সামনে। বল পেয়ে বুলেট গতির শটে জাল খুঁজে নেন রাজন। এতেই সমতায় ১-১ গোলে ফেরে বাংলাদেশ।

ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে দুর্দান্ত এক গোল করে বাংলাদেশ লিড নেয়। ভারতের রক্ষণে প্রবল চাপ দিয়ে এগিয়ে যায় পল স্মলির দল। ৪৮ মিনিটে নিজেদের অর্ধ থেকে ইমরানের লম্বা বল গিয়ে পড়ে ভারতের বক্সে,

স্বাগতিকদের এক ডিফেন্ডার ক্লিয়ার করার চেষ্টা করলে পিয়াসের মাথায় লেগে চলে যায় শাহীনের পায়ে। দেখে-শুনে বাম পায়ের গতির শটে লক্ষ্যভেদ করেন ডিফেন্ডার শাহীন মিয়া।

তবে লিড ধরে রাখতে পারেনি বাংলাদেশ। ৬০ মিনিটে সমতায় ফেরে স্বাগতিকরা। ডি বক্সের মুখ থেকে গুরক্রিত সিংয়ের বুলেট গতির শট জালে জড়ায়। এরপর আর কোনো গোল না হওয়ায় নির্ধারিত ৯০ মিনিটে ২-২ গোলে শেষ ম্যাচ হয়। আর এতেই খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে।

লিগ পর্বে অপরাজিত থাকা বাংলাদেশ অতিরিক্ত ত্রিশ মিনিটে আর পেরে ওঠেনি বাংলাদেশ। দশ মিনিটের মধ্যে তিন গোল হজম করে ফাইনাল হারের হতাশায় ডুবে বাংলাদেশ।

অতিরিক্ত সময়ের শুরুতেই হিমাংশুর গোলে লিড নেয় স্বাগতিকরা। পরের মিনিটেই হ্যাটট্রিক পূরণ করে ব্যবধান ৪-২ করে ফেলেন গুরক্রিত সিং। এরপর আরও বিধ্বংসী ভারত।

৯৯ মিনিটে বক্সের প্রায় ৩৫ গজ দূর থেকে ডান পায়ের শটে চোখ ধাঁধানো গোল করেন গুরক্রিত। এই ম্যাচে চার গোলসহ টুর্নামেন্টে মোট আট গোল ভারতীয় এই ফরোয়ার্ডের। বাকি সময়ে আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি বাংলাদেশ।

এতেই সাফ অনূর্ধ্ব-২০ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ভারতের কাছে ৫-২ ব্যবধানের হার বাংলাদেশ। এর আগে ২০১৯ সালে অনূর্ধ্ব-১৮ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ভারতের কাছে হেরেছিল বাংলাদেশের যুবারা। ভুবনেশ্বরে এবার সেই হারের প্রতিশোধ নিতে চেয়েছিল বাংলাদেশ। সে পথে এগিয়েও যায় কিন্তু শেষ পর্যন্ত স্বাগতিকদের আর আটকাতে পারেনি।

Check Also

ওপেনিংয়ে নতুন মুখ রেখে যেমন হতে পারে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের বাংলাদেশের একাদশ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে শেষবারের মতো পরীক্ষা নিরীক্ষা সুযোগ পাচ্ছে টিম ম্যানেজমেন্ট। বিশ্বকাপের আগে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.