Home / সর্বশেষ / জিম্বাবুয়ের সাথে প্রথম সিরিজ হারের কলঙ্ক নিয়ে যাকে দুষলেন অধিনায়ক মোসাদ্দেক

জিম্বাবুয়ের সাথে প্রথম সিরিজ হারের কলঙ্ক নিয়ে যাকে দুষলেন অধিনায়ক মোসাদ্দেক

ঘরে-বাইরে এই নিয়ে টি-টোয়েন্টি সপ্তম সিরিজে মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ। আগের ৬ বার একচ্ছত্র শাসন ছিল টাইগারদেরই। কিন্তু সপ্তমবার এসে আর সিরিজটা নিজেদের কাছে রেখে দিতে পারলো না বাংলাদেশ।

সিরিজের শেষ ম্যাচেও হারতে হলো ১০ রানের ব্যবধানে। সে সঙ্গে টি-টোয়েন্টিতে প্রথমবারেরমত জিম্বাবুয়ের কাছে সিরিজে হারলো বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। এই সিরিজ জয়ে জিম্বাবুয়ের অর্জন হলো আরো একটি। যে কোনো টেস্ট খেলুড়ে দেশের বিপক্ষে এই প্রথম কোনো সিরিজ জয়ের কৃতিত্ব অর্জন করলো তারা।

১৫৭ রানের লক্ষ্য, টি-টোয়েন্টিতে এমন লক্ষ্যকে বড়জোর মাঝারি মাপের বলা চলে। এই লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে যেমন শুরুর দরকার ছিল বাংলাদেশের, তেমনটা এনে দিতে পারেননি ওপেনাররা।

ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই সাজঘরে লিটন দাস। ভিক্টর নিয়াউচিকে ফিরতি ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন এই ডানহাতি। ৬ বলে ১৩ রান করেন। দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অভিষেক ক্যাপ পাওয়া পারভেজ হোসেন ইমন ২ রানের বেশি করতে পারেননি।

টাইমিংয়ে গড়বড় করে নিয়াউচির বলে মিড অনে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন। দলে সুযোগ পেয়েও আস্থার প্রতিদান দিতে পারেননি এনামুল হক বিজয়ও। আরো একবার ব্যর্থ হয়েছেন তিনি।

১৩ বলে ১৪ রান করে বোল্ড হন। এতে ৩৪ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপদে বাংলাদেশ। সেই বিপদ আর কাটিয়ে উঠতে পারেনি সফরকারী শিবির। নাজমুল হোসেন শান্ত ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ কিছুটা আশা দেখালেও সেট হয়েও নিজেদের ইনিংস বড় করতে পারেননি তারা।

দ্রুত উইকেট হারানোর পর বিপদে পড়ে যায় বাংলাদেশ। সেখান থেকে দলকে বাঁচাতে লড়েন আফিফ ও মেহেদী হাসান। কিন্তু দুজন মিলে পারেননি দলকে উদ্ধার করতে। ১৭ বলে ২২ রান করেন মেহেদী। আর আফিফ করেন ২৭ বলে ৩৯ রান।

প্রথম বাবের মত বাংলাদেশের সাথে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়ে ইতিহাস হয়ে থাকলো হারারে স্পোর্টিং ক্লাব। উন্ডিজদের সাথে হারার পর এবার প্রতিপক্ষ জিম্বাবুয়ে।তিন ম্যাচ সিরিজের ২-১ হারে বাংলাদেশ।

তাই হেরে এ ম্যাচের পুরস্কার বিতারনি অনুষ্ঠানে মোসাদ্দেক বলেন,”প্রথম ১৪ ওভারে আমরা ম্যাচে ছিলাম। নাসুমের এক ওভারে সব সমীকরণ বদলে যায়। আর শুরুতে উইকেট হারিয়ে এমন রান তাড়া করা কঠিন। আমরা ওয়ানডেতে ভালো দল সে খানে ছেলেরা বাউন্স ব্যাক করবে।”

Check Also

গ্রুপপর্বেই শেষ বেলজিয়ামের সোনালি প্রজন্মের দৌড়, ক্রোয়েশিয়ার উত্তরণ

রেফারির শেষ বাঁশি। আহমেদ বিন আলী স্টেডিয়ামে বসে পড়লেন লুকাকু-ডি ব্রুইনারা। গত বিশ্বকাপের সেমিফাইনালিস্ট ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published.