আইপিএলে প্রতি বলে সাড়ে নয় লাখ টাকা পাবেন স্ট্রাক

প্যাট কামিন্সের রেকর্ডটা ঘণ্টাখানেকও টেকেনি। দুবাইয়ে আইপিএলের নিলামে আজ অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ককে প্রথমে ২০ কোটি ৫০ লাখ রূপিতে কেনে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ, সে সময়ে কামিন্স ছিলেন আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে দামী ক্রিকেটার। কিন্তু ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই অস্ট্রেলিয়ান ফাস্ট বোলারের সে রেকর্ড ভেঙে চুরমার!

গুজরাট টাইটানসের সঙ্গে তুমুল লড়াইয়ের পর যে কলকাতা নাইট রাইডার্স ২৪ কোটি ৭৫ লাখ রূপিতে কিনে নেয় অস্ট্রেলিয়ারই বাঁহাতি ফাস্ট বোলার মিচেল স্টার্ককে কিনে নেয়।

চোখ কপালে তুলে দেওয়ার মতো অঙ্ক। এই অঙ্কই আরও হিসেব-নিকেশের জন্ম দিয়েছে। অনেকের যে আগ্রহ জেগেছে – স্টার্ক এবার আইপিএলে প্রতি বলের বিপরীতে কত টাকা কামাই করবেন? সে উত্তরের খোঁজেই ৩৪ বছর বয়সী অস্ট্রেলিয়ানের আইপিএল চুক্তিটা একবার দেখে নেওয়া যাক …

মৌসুমে ২৪ কোটি ৭৫ লাখ

আইপিএলে একজন খেলোয়াড় যদি পুরো মৌসুমে খেলার জন্য নিজেকে প্রস্তুত ঘোষণা করেন, সে ক্ষেত্রে নিলামে তিনি যে দামে বিক্রি হবেন, পুরো মৌসুমের জন্য সেটিই হবে তাঁর বেতন। এখান থেকে অবশ্য ট্যাক্স কাটা হবে।

আইপিএলের নিয়ম অনুযায়ী, যদি টুর্নামেন্ট শুরুর আগে খেলোয়াড় চোটে পড়েন এবং পুরো মৌসুমেই কোনো ম্যাচ খেলতে না পারেন, শুধুমাত্র সে ক্ষেত্রেই খেলোয়াড়কে কোনো অর্থ দিতে বাধ্য নয় ফ্র্যাঞ্চাইজি। কিন্তু খেলোয়াড় যদি মৌসুমে সব ম্যাচ খেলার মতো ‘অ্যাভেইলেবল’ ঘোষণা করেন নিজেকে, সে ক্ষেত্রে চুক্তির পুরো অঙ্ক দিতে হবে ফ্র্যাঞ্চাইজিকে।

স্টার্ক এবার আইপিএলের পুরোটাই খেলার কথা, সে ক্ষেত্রে চোটে না পড়লে পুরো অঙ্কই পাওয়ার কথা তাঁর।

এক ম্যাচে পৌনে দুই কোটি

কলকাতা নাইট রাইডার্স যদি গ্রুপ পর্ব পেরোতে না-ও পারে, সে ক্ষেত্রে অন্তত ১৪টি ম্যাচ খেলবে তারা। সে ক্ষেত্রে স্টার্কের ম্যাচপ্রতি আয় দাঁড়াবে ১ কোটি ৭৬ লাখ রূপি। বাংলাদেশি মুদ্রায় ২ কোটি ৩২ লাখ টাকা।

বলপ্রতি কত টাকা?

কমপক্ষে তো ১৪ ম্যাচ খেলবে কলকাতা, সেই ১৪ ম্যাচ ধরেই হিসাবটা করা যাক। ম্যাচে একজন বোলার সর্বোচ্চ ৪ ওভার, অর্থাৎ ২৪টি বল করতে পারবেন। স্টার্ক ১৪ ম্যাচের প্রতিটিতেই ২৪ বল করবেন ধরে নিলে, আইপিএলে এবার তাঁর বলপ্রতি আয় দাঁড়াবে ৭ লাখ ৩৬ হাজার রূপি! বাংলাদেশি মুদ্রায় ৯ লাখ ৭১ হাজার টাকা।

কেকেআর যদি প্লে-অফ পেরিয়ে ফাইনালে খেলে, সে ক্ষেত্রে মৌসুমে সর্বোচ্চ ১৭টি ম্যাচ খেলবে তারা। সে ক্ষেত্রে স্টার্কের বলপ্রতি আয় কিছুটা কমবে। অর্থাৎ, ১৭ ম্যাচের প্রতিটিতে পুরো ৪ ওভার করবেন ধরলে আইপিএলে এবার সর্বোচ্চ ৪০৮টি বল করবেন স্টার্ক। সে ক্ষেত্রে বলপ্রতি তাঁর আয় দাঁড়াবে ৬ লাখ ৬ হাজার রূপি। বাংলাদেশি মুদ্রায় ৭ লাখ ৯৯ হাজার টাকা!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *