Home / সর্বশেষ / প্রোটিয়া লিগের সব দল কিনে নিল আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজিরা

প্রোটিয়া লিগের সব দল কিনে নিল আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজিরা

অনেকে বলে থাকেন, যুগটা এখন ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের। তাদের সেই দাবিকে উড়িয়ে দেওয়ার সুযোগ নেই। কারণ ক্রিকেট খেলুড়ে দেশগুলোতে এখন ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট লিগ আয়োজনের হিড়িক।

এবার সেই তালিকায় যুক্ত হচ্ছে টেস্ট খেলুড়ে দেশ দক্ষিণ আফ্রিকার নাম। বিগত দিনে জমজমাট ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ আয়োজনের চেষ্টা ব্যর্থ হলেও এবার ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা বেশ আটঘাট বেঁধে নেমেছে।

লিগের জন্য আইসিসি ওয়ানডে সুপার লিগের অন্তর্গত সিরিজও বাতিল করেছে। নতুন খবর হল- এই ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের সবগুলো দল থাকছে আইপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজিদের মালিকানায়।

৬ দলের এই টুর্নামেন্টে দলগুলোর মালিকানায় থাকছেন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের আম্বানি, চেন্নাই সুপার কিংসের শ্রীনিবাসন, দিল্লী ক্যাপিটালসের জিন্দাল, সানরাইজার্স হায়দরাবাদের মারান, লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টসের গোয়েঙ্কা ও রাজস্থান রয়্যালসের বাদাল।

ক্রিকেট বিষয়ক সংবাদমাধ্যম ক্রিকবাজ জানিয়েছে, সিএসএ এখনও আনুষ্ঠানিক ঘোষণা না দিলেও সফল বিডার হিসেবে চূড়ান্ত হয়েছে এই ছয় মালিকপক্ষ।

তাদের পছন্দের শহর বেছে নেওয়ার জন্যও বলা হয়েছে। ১৩ জুলাই শেষ হওয়া বিডিংয়ে মোট ২৯ ব্যক্তি বা সংস্থা দল কিনতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তবে আইপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজিদের কাছে অন্যরা পাত্তাই পাননি।

গুঞ্জন রয়েছে, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের মালিকপক্ষ কেপটাউন, চেন্নাই সুপার কিংসের মালিকপক্ষ জোহানেসবার্গ, দিল্লী ক্যাপিটালসের মালিকপক্ষ সেঞ্চুরিয়নকে প্রতিনিধিত্ব করার জন্য বেছে নিতে পারে।

এছাড়া লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টস ডারবান, সানরাইজার্স হায়দরাবাদ পোর্ট এলিজাবেথ ও রাজস্থান রয়্যালসের মালিকপক্ষ পার্লকে বেছে নেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

২০১৭ সালে বেশ ঘটা করে গ্লোবাল টি-টোয়েন্টি লিগ আয়োজনের পরিকল্পনা করা হয়, যেখানে আটটি দল অংশ নেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সম্প্রচার প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তি নিয়ে ঝামেলা পাকানোয় মাঠে গড়ায়নি টুর্নামেন্টটি।

এরপর ২০১৮ সালে আট দল নিয়ে এমজানসি সুপার লিগ নামে আরও একটি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের পরিকল্পনা করা হয়। করোনার আগে এর দুটি মৌসুম মাঠেও গড়ায়। তবে করোনা এলে থমকে যায় আয়োজন। ফলে এই টুর্নামেন্টের নাম অনেকেই ভুলতে বসেছেন।

অতীতের ব্যর্থতা ভুলে এবার তাই নতুন করে শুরু করতে চায় দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট বোর্ড। সেই লক্ষ্যে ৬ দল নিয়ে এবারের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ আয়োজনের সিদ্ধান্ত হয়েছে। এখনও অবশ্য কোনো নাম নির্ধারণ করা হয়নি টুর্নামেন্টটির।

আগামী জানুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকার অস্ট্রেলিয়া সফর শেষে এই লিগ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও টুর্নামেন্টটির জন্য অস্ট্রেলিয়া সফর বাতিল করেছে দক্ষিণ আফ্রিকান বোর্ড সিএসএ।

এখনও কোনো আসর মাঠে না গড়ানোর টুর্নামেন্টটির প্রতি আসরই জানুয়ারিতে করতে চান আয়োজকরা। সেক্ষেত্রে ক্যালেন্ডারে বিপিএল ও পিএসএলের মত টুর্নামেন্টের সাথে সাংঘর্ষিক হতে পারে।

৬ দলের টুর্নামেন্টে রাউন্ড রবিন লিগের খেলা শেষে প্লে-অফে অংশ নেবে শীর্ষ তিনটি দল। ৩৩ ম্যাচের এই টুর্নামেন্ট আয়োজনে ৩ থেকে ৪ সপ্তাহ সময় লাগবে।

Check Also

লিটন কিংবা সোহান নয়, বাংলাদেশ দলের জন্য স্মার্ট অধিনায়ক খুঁজে পেল বিসিবি

সীমিত ওভারের ফরম্যাটে বাংলাদেশের সবচেয়ে নির্ভর যোগ্য ব্যাটসন্যানের নাম বললে সেখানে আফিফ হোসেনের নাম থাকবেই। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.