Home / সর্বশেষ / শেষ ম্যাচে একাধিক পরিবর্তন, খেলবেন না তামিম

শেষ ম্যাচে একাধিক পরিবর্তন, খেলবেন না তামিম

বর্তমানে বাংলাদেশ ওয়ানডে দলে অধিনায়কত্ব করছেন তামিম ইকবাল। এই ক্রিকেটারের অধীনে দল ওয়ানডে ফরম্যাটে দারুণ সফল। তামিমের নেতৃত্বে সর্বশেষ পাঁচ সিরিজে জয়ী দলের নাম বাংলাদেশ।

অধিনায়ক তামিম কেবল জয়ে সন্তুষ্ট থাকতে চাইছেন না। দলের বেঞ্চ শক্তিশালী করার পরিকল্পনাও করছেন। বিশেষ করে ২০২৩ সালের বিশ্বকাপকে মাথায় রেখে দলের পাইপলাইন শক্ত করার জন্য নিয়মিত ক্রিকেটার ছাড়াও অন্যদের সুযোগ করে দেওয়ার পক্ষে তামিম।

অন্য ক্রিকেটারদের সুযোগ দিয়ে তৈরি করার লক্ষ্যে প্রয়োজনে নিজেই বিশ্রাম নেবেন বলেই জানিয়েছেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ওয়ানডেতে ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লিগ চালু হওয়ার পর থেকে প্রতিটি ম্যাচই গুরুত্বপূর্ণ। কোনো ম্যাচই হারতে চায় না দলগুলো।

তবে সুপার লিগের বাইরে দ্বিপাক্ষিক সিরিজগুলোতে নতুন ক্রিকেটারদের বাজিয়ে দেখার পরিকল্পনা অধিনায়ক তামিম এবং কোচ রাসেল ডমিঙ্গো দুইজনেরই। উইন্ডিজের বিপক্ষে চলতি ওয়ানডে সিরিজ কিংবা আসছে জিম্বাবুয়ে সিরিজে তাই নতুন ক্রিকেটারদের মাঠে নামতে দেখা যেতে পারে।

বেঞ্চের স্ট্রেংথ দেখার কথা জানিয়ে ম্যাচ শেষে তামিম বলেন, ‘এখন আমাদের সময় এসেছে ‘বেঞ্চ স্ট্রেংথ’ দেখে নেওয়ার। সাধারণত যখন পয়েন্টসের ব্যাপার থাকে, তখন সুযোগ থাকে না।

কিন্তু এ রকম সিরিজে যদি ২-০তে এগিয়ে যান, তখন যারা খেলেনি বা যাদেরকে নিয়ে আমরা অনেক দিন ধরে ঘুরছি, তাদের সুযোগ দেওয়া উচিত। এটির জন্য আমারও এক-দুই ম্যাচ মিস করতে হলে, ইটস ফাইন। কোনো সমস্যা নেই।

বেঞ্চ স্ট্রেংথ অবশ্যই আমাদের পরীক্ষা করা উচিত। এই একটা জিনিস বাংলাদেশের ক্রিকেটে আমরা খুব কম করি। সব ম্যাচ তো আমরা অবশ্যই জিততেই চাই। তবে মাঝেমধ্যে এটা করা খুব জরুরি, বিশেষ করে ওয়ানডেতে। কারণ, কে জানে, বড় সিরিজে গিয়ে দুজন গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার চোট পেতেই পারে।

এই জায়গায় যদি আমরা বাইরে থাকাদের দেখতে না পারি, তাহলে দেখব কোথায়। কারণ, হঠাৎ যদি কেউ চোটে পড়ে যায়, তখন একটা ছেলে কোনো ম্যাচ অনুশীলন ছাড়া এসে খেললে তার কাজটা একটু কঠিন হয়ে ওঠে। তাই সম্ভবত শেষ ম্যাচে এরকম অনেকে খেলবে, যারা খুব বেশি খেলেনি।’

একই সুরে টাইগার কোচ রাসেল ডমিঙ্গো ইয়ান বিশপের সঙ্গে আলোচনায় বলছিলেন, ‘শেষ ম্যাচটি আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটা দিক থেকে। এতদিনে এত গুরুত্বপূর্ণ সব ওয়ানডে সিরিজ খেলেছি, যেখানে পয়েন্ট খুব জরুরি। দলে পরিবর্তনের কথা খুব একটা ভাবনায় আনা যায়নি।

তবে এখানে সুযোগ আছে পরখ করার। কারণ, ২০২৩ বিশ্বকাপে তাকিয়ে কিছু ক্রিকেটারকে দেখে নেওয়ার ব্যাপার আছে। এখানে পয়েন্টের কোনো ব্যাপার নেই। বাইরে থাকাদের পরখ করার দারুণ সুযোগ এটি।’

Check Also

ওপেনিংয়ে নতুন মুখ রেখে যেমন হতে পারে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের বাংলাদেশের একাদশ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে শেষবারের মতো পরীক্ষা নিরীক্ষা সুযোগ পাচ্ছে টিম ম্যানেজমেন্ট। বিশ্বকাপের আগে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.