Home / সর্বশেষ / বন্ধু নেইমারের পর মেসি, কোন পথে হাটছে পিএসজি?

বন্ধু নেইমারের পর মেসি, কোন পথে হাটছে পিএসজি?

ফরাসি ক্লাব পিএসজিকে নিয়ে অনেকটা সরগরম চলছে খেলার দুনিয়ায়। নানা খবর সামনে আসছে ক্লাবটিকে ঘিরে। এবার সেখানে যোগ হলো নতুন খবর।

লিওনেল মেসির পায়ের তলায় মাটি সরে যাচ্ছে ফরাসি দলটিতে। ফলে আগামী মৌসুমে পিএসজি ছাড়া অন্য দলে দেখা যেতে পারে আর্জেন্টাইন অধিনায়ককেও।

শেষ কিছু দিনে নেইমারের পিএসজি ছাড়াটা ইউরোপীয় সংবাদ মাধ্যমে আলোচ্য বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। তার নিবেদনকে প্রশ্ন করা শুরু করেছে পিএসজি কর্তৃপক্ষ।

চলতি দলবদলেই তাকে ছেড়ে দিতে মরিয়া ক্লাবটি। তার নতুন গন্তব্য কোথায় হতে পারে, এ নিয়েও জল্পনা কল্পনার শেষ নেই। বন্ধু নেইমারের দুরবস্থায় থাকলেও এতদিন বলা হচ্ছিল,

মেসি আছেন নিরাপদ অবস্থানেই। তবে এবার নতুন খবর আসছে, তার জায়গা নিয়েও প্রশ্ন ওঠা শুরু করেছে পিএসজি কর্তাব্যক্তিদের মধ্যে। যে কারণে নেইমারের মতো তাকেও বিদায় জানিয়ে দিতে পারে পিএসজি।

স্প্যানিশ সাংবাদিক পেদ্রো মোরাতা জানাচ্ছেন এই খবর। তার ভাষ্য, লুইস ক্যাম্পোস আর আন্তেরো এনরিককে ক্রীড়া ব্যবস্থাপনায় এনেছে পিএসজি।

বিশাল বেতন নিয়েও তেমন কিছুই করতে না পারায় মেসিকেও ছেঁটে ফেলতে চাইছেন তারা। গেল মৌসুমে মেসি পিএসজির হয়ে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৩৪ ম্যাচে খেলেছেন।

সেখানে তার সর্বমোট গোলসংখ্যা ১১টি। আর সতীর্থদের দিয়ে করিয়েছেন ১৫ গোল। অথচ পিএসজি থেকে গেল মৌসুমে তিনি বেতন নিয়েছেন প্রায় ৩৮৪ কোটি টাকা।

পোর্তো থেকে মিডফিল্ডার ভিতিনিয়াকে দলে ভিড়িয়ে তার প্রাথমিক ইঙ্গিতটাও দিচ্ছে ক্লাবটি। মোরাতা জানান, মেসি ও নেইমারকে দলছাড়া করতে পিএসজির বড় বাধা হবে তাদের চুক্তি।

মেসির চুক্তি আছে আগামী বছরের জুলাই পর্যন্ত, আর নেইমারেরটা আরও বেশি, চুক্তিবলে ২০২৭ সাল পর্যন্ত দলটিতে থাকবেন তিনি। তাদের বিশাল বেতনের কারণে ইউরোপের বাজারে খুব বেশি দল নেই যারা তাদের দলে ভেড়াতে পারবে।

সেটা একটা বড় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে দলটির সামনে। তবে স্প্যানিশ এই সাংবাদিকের ভাষ্য, পিএসজি ছাড়ার বিষয়ে কোনো আপত্তি নেই মেসি কিংবা নেইমারের। দু’জনেই সাগ্রহে ক্লাব ছাড়তে আগ্রহী।

Check Also

যে কৃষক ভালো, তার ফসলও ভালো: মাহিয়া মাহি

আজ চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ (গোমস্তাপুর, নাচোল, ভোলাহাট) আসনে মুহা. জিয়াউর …

Leave a Reply

Your email address will not be published.