Home / সর্বশেষ / রাজনৈতিক ফায়দা তুলতে তথ্যবিভ্রাট, ক্রিকেট বাঁচাতে পাপনকে খোলাচিঠি!

রাজনৈতিক ফায়দা তুলতে তথ্যবিভ্রাট, ক্রিকেট বাঁচাতে পাপনকে খোলাচিঠি!

ব্যাটসম্যানদের ট্যাকনিকেই সমস্যা প্রশ্নবিদ্ধ কোচিং স্টাপ। টেস্ট ক্রিকেটের নাকি সংস্কৃতিই তৈরি হয় নি বাংলাদেশে।ঘোড়য়া ক্রিকেট এখনো জাতেই উঠতে পারে নি।

টেস্ট ক্রিকেটে িকোন দিকে যাচ্ছে বাংলাদেশ।সমস্যাটা কতটা গভিরে।বাংলাদেশের টেস্ট ক্রিকেটের প্রকৃত চিত্রটা আসলে কি।বিসিবি বসকে খোলা চিঠি লিখেছেন রহমান পিয়াস।

প্রিয় পাপন ভাই টেস্টে কি করছে বাংলাদেশ? খেলাধুলায় জয়-পরাজয় থাকাটাই স্বাভাবিক। দিনের পর দিন কিংবা ম্যাচের পর ম্যাচ কোনো দল যদি হেরে যায় তারমানে কিন্তু এই না যে ওই দলটা খুব খারাপ হয়ে গেছে।

কিন্তু পরাজয়ের ব্যবধানগুলো ভীষণ পীড়া দেয়, পাপন ভাই। নিশ্চয়ই আপনিও মানতে পারছেন না। ডারবান, পোর্ট এলিজাবেথ, ঢাকা, অ্যান্টিগা, সেন্ট বা লুসিয়া এই পাঁচ টেস্টে বাংলাদেশের পরাজয়ের ধরণগুলো একবার দেখুন!

ডারবানে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ৫৩ রানে অলআউট হয়ে ২২০ রানের হার। পোর্ট এলিজাবেথে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ৮০ রানে অলআউট হয়ে ৩৩২ রানের হার।

ঢাকা, অ্যান্টিগা ২০২ রান আর সেন্ট লুসিয়ায় যথাক্রমে ১০ উইকেট, ৭ উইকেট এবং ১০ উইকেটে পরাজয়।ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে দলের অধিনায়ক এবং কোচ কী বলেছেন একবার কি মনোযোগ দিয়া শুনেছেন, পাপন ভাই।

বিশ্বের এবং দেশের নাম্বার ওয়ান অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান অকপটে বলে দিয়েছেন ব্যাটসম্যানদের টেকনিকে সমস্যা আছে। আপনি কি প্রিয় পাপন ভাই,

আপনি কি বুঝতে পেরেছেন সাকিব বিং করে কতো গুরুত্বপূর্ণ এবং কতো বড় কথা বলেছেন? বলি সানি যদি সারসংক্ষেপে বলি সাকিবের কথার মানে হচ্ছে ক্রিকেট আপনার ঘরোয়া ক্রিকেট এবং আপনার কোচিং স্টাফেও ঠিক নেই।

আমাদের ক্ষুদ্র জ্ঞান বলে এই দুইটা পর্যায় থেকেই মূলত ক্রিকেটারদের টেকনিক সমস্যার মূলত ফ্রিজে সমাধান হয়।সাকিবের কথাটা যদি বিস্ফোরক হয় তাহলে এই সফরে আরো একটা বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে কোচ রাসেল ডমিঙ্গো এই সাউথ আফ্রিকান কোচ বলেছেন টেস্ট ক্রিকেটের সংস্কৃতি বাংলাদেশ এখনো তৈরি হয়নি।

প্রিয় পাপন ভাই একটু গভীরভাবে ভেবে দেখেন এই কথাটাও আপনার কিংবা আপনার বোর্ডের বিপক্ষে কিভাবে যাচ্ছে। কিছুদিন আগে আরো একটা রিপোর্ট স্পষ্ট করেছিলো যেখানে স্পষ্ট করে বলা হয়েছিলো টেস্ট সাতজন যে স্ট্যাটাসের পর সাতজন বোর্ড প্রেসিডেন্ট মিলিয়ে য়েছে।

এর ২২ বছর কাটিয়েছে। এর অর্থ হচ্ছে বাকি ৬ জন ১০ বছর কাটিয়ে দিয়ে মিলে কাটিয়েছে ১১ বছর।আর সভাপতি হিসেবে আপনি একাই কাটিয়ে দিয়েছেন প্রায় ১১ বছর।

আগের ছয়জন বোর্ড প্রেসিডেন্ট লম্বা সময়ের জন্য জন্য বোর্ড সে হয়তো প্যান করে থাকলেও কার্যকর কিংবা বাস্তবায়ন করার মতো সময় পাননি। কিন্তু আপনি তো একটা লম্বা সময় পেয়েছেন।

এই সময়ে এসে এখনো শুনতে হয় ব্যাটসম্যানদের টেকনিকের সমস্যার কথা, টেস্ট ক্রিকেটের সংস্কৃতি এখনো তৈরি হয়নি এবং আপনি স্বয়ং নিজে বলছেন টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশ এখনো দুর্বল দল।

এর ভিতর সাম্প্রতিক সময়ে আপনি ক্রিকেটপ্রেমীদের কষ্টের আগুনে ঘি ঢেলে দিয়ছেন। আপনি বলেছেন ভারত ২৬বছরে প্রথম টেস্ট জিতেছে।

কিন্তু ২৬ বছর না আসলে ২০ বছরে ভারত পায় প্রথম টেস্ট জয়ের স্বাদ। শুধু তাই না ভারতের সাথে বাংলাদেশের তুলনা করার আগে দেখা উচিত আরো কিছু পরিসংখ্যান।

টাইগাররা প্রথম জয় পায় ৫ বছরের মাথায়। কিন্তু ভারত ২০ 15 বছরে যেখানে ম্যাচ খেলেছে ২৫ টা বাংলাদেশ ৫ তবে বেশি বছরেই তার চেয়ে বেশি টেস্ট খেলেছে ১০ টা।

শুধু তাই না ২০ বছরে ভারত যতখানি উন্নতি করেছে ২০ বছরে বাংলাদেশ তার আশেপাশেও নেই। এই সময় টাইগাররা ভারতের চেয়ে ৯৪ টা টেস্ট বেশি খেলেছে।

অথচ বাংলাদেমের ড্রয়ের পার্সেন্টেজ মাত্র ১৩ আর ভারতের ৪৮।প্রিয় পাপন ভাই একবার ভেবে দেখুন কতো বড় তথ্যবিভ্রাট রয়েছে এখানে।

যারা আপনাকে এসব তথ্য দিয়ে হেল্প করেছে তারা নিশ্চয়ই রাজনৈতিক খয়ের খাঁদের মতো আপনার দৃষ্টি কিংবা মনোযোগ তাদের পক্ষে নেয়ার চেষ্টা করেছেন। এসব লোকদের থেকে আপনি দূরে থাকার চেষ্টা করুন। নয়তো আপনাকে – ভুলভাল তথ্য দিনের-পর-দিন দিয়েই যাবে

Check Also

বিশ্বকাপে সব ম্যাচ হারলেও মোটা অংকের টাকা পাবেন সাকিবরা

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরুর আর মাত্র দুই সপ্তাহ বাকি। ১৬ অক্টোবর থেকে অস্ট্রেলিয়ায় বসবে বিশ্বকাপের আসর। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.