Home / সর্বশেষ / ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচে লাল কার্ড দেখলেই বিশ্বকাপে নিষিদ্ধ থাকতে হবে তাদের।

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচে লাল কার্ড দেখলেই বিশ্বকাপে নিষিদ্ধ থাকতে হবে তাদের।

ম্যাচটা হবে কি না, হলেও কোথায় হবে, সেসব নিয়ে এখনো সংশয় আছে। ফিফা বলে দিয়েছে, গত সেপ্টেম্বরে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার স্থগিত

হয়ে যাওয়া ম্যাচটা এ বছরের সেপ্টেম্বরে ব্রাজিলের মাটিতে হতে হবে। কিন্তু ম্যাচটি খেলতে আর্জেন্টিনার আপত্তি আছে, ব্রাজিল কোচ তিতে চেয়েছেন ম্যাচটা হলেও হোক ইউরোপের কোনো মাঠে।

তবে শেষ পর্যন্ত যেখানেই হোক, ব্রাজিল আর আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়দের জন্য একটা শঙ্কা নিয়েই আসছে ম্যাচটা। এই ম্যাচে ব্রাজিল বা আর্জেন্টিনার কোনো খেলোয়াড় লাল কার্ড দেখলে যে বিশ্বকাপের ম্যাচে নিষিদ্ধ থাকতে হবে তাঁদের!

গত বছরের সেপ্টেম্বরে ব্রাজিলের সাও পাওলোতে ব্রাজিল আর আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচটি মাঠে ঠিকই গড়িয়েছিল। কিন্তু ইংল্যান্ডের ক্লাবে খেলা আর্জেন্টিনার চার খেলোয়াড় ব্রাজিলে ঢোকার ক্ষেত্রে করোনাবিধি মানাসংক্রান্ত তথ্য লুকিয়েছেন

এই অভিযোগে ম্যাচের ৫ মিনিটের সময় মাঠে ঢুকে পড়েন সাও পাওলোর স্বাস্থ্যবিধি তত্ত্বাবধায়ক প্রতিষ্ঠান আনভিসার কর্মকর্তারা। ওই চার খেলোয়াড়কে মাঠ থেকে নিয়ে যেতে চেয়েছিলেন তাঁরা। কিন্তু সেটি শেষ পর্যন্ত পারেননি, আর ম্যাচের অপমৃত্যু সেখানেই।

সেই ম্যাচ না খেলেই দক্ষিণ আমেরিকার ২০২২ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে সেরা দুই দল হিসেবে কাতার বিশ্বকাপে জায়গা নিশ্চিত করেছে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। বাকি ১৭ ম্যাচে দুই দলই অপরাজিত ছিল।

লাতিন অঞ্চল তো বটেই, সব মিলিয়ে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের বাকি সব ম্যাচও শেষ। এমন অবস্থায় ম্যাচটা খেলার আর কোনো প্রয়োজন দেখে না আর্জেন্টিনা।

ব্রাজিল এ নিয়ে সরাসরি কিছু না বললেও তাদের কোচ তিতে চেয়েছেন, ম্যাচটা হতেই হলে সেটি ইউরোপে হোক। কারণ, সে সময়ে ইউরোপের ক্লাব মৌসুম শুরু হয়ে যাবে,

এমন পরিস্থিতিতে ‘অপ্রয়োজনীয়’ একটা ম্যাচ খেলার জন্য ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়দের ইউরোপ থেকে ব্রাজিলে লম্বা বিমানভ্রমণের ধকল সইতে হবে।

তার ওপর অন্য সময়ে বিশ্বকাপ জুন-জুলাইয়ে ক্লাব মৌসুমের বিরতিতে হলেও এবার হবে ক্লাব মৌসুমের মধ্যে নভেম্বর-ডিসেম্বরে। সে কারণে এবার ক্লাব মৌসুমেও তাড়াহুড়ো থাকবে, ম্যাচের মাঝে বিরতি থাকবে আগের চেয়ে কম।

কিন্তু ফিফা নিয়ম অটুট রাখতে চায়। সে কারণেই ম্যাচটা ব্রাজিলেই আয়োজনের সিদ্ধান্ত। তা-ও ম্যাচটা হবে কাতার বিশ্বকাপ শুরুর মাস দুয়েক আগে।

কিন্তু আপাত মূল্যহীন এই ম্যাচ ঘিরেই আরেকটা শঙ্কার কথা জানাচ্ছে আর্জেন্টাইন ওয়েবসাইট টিওয়াইসি স্পোর্টস। এই ম্যাচে কেউ লাল কার্ড দেখলে যে সেটির জন্য ভুগতে হবে বিশ্বকাপে।

২০১৯ সাল থেকে কার্যকর ফিফার শৃঙ্খলাবিধির ধারা ৬৫-কে উদ্ধৃত করে টিওয়াইসি লিখেছে, টুর্নামেন্টের বাইরের কোনো ম্যাচে কেউ লাল কার্ড দেখলে বা যে টুর্নামেন্টে কার্ডটা দেখেছে

সেই টুর্নামেন্টে নিষেধাজ্ঞার শাস্তি কার্যকর না হলে (এ ক্ষেত্রে লাতিন অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের শেষ ম্যাচ হবে এটি), সে ক্ষেত্রে জাতীয় দলের পরের আনুষ্ঠানিক ম্যাচে নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে।

সেপ্টেম্বরে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচটির পর ব্রাজিল বা আর্জেন্টিনার পরের ফিফা স্বীকৃত ‘আনুষ্ঠানিক’ ম্যাচ তো সেই বিশ্বকাপেই! সৌদি আরবের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ অভিযান শুরু হবে, ব্রাজিলের বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচ সার্বিয়ার বিপক্ষে।

অর্থাৎ সেপ্টেম্বরে ব্রাজিলের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার কেউ লাল কার্ড দেখলে (ভয়ংকর কিছু না হলে নিষেধাজ্ঞা এক ম্যাচেরই হবে) সেটির শাস্তি হিসেবে বিশ্বকাপে সৌদি আরবের বিপক্ষে খেলতে পারবেন না ওই খেলোয়াড়। আর ব্রাজিলের কেউ আর্জেন্টিনার বিপক্ষে লাল কার্ড দেখলে খেলতে পারবেন না সার্বিয়ার বিপক্ষে।

Check Also

পেনাল্টি শুট আউটে কাজে লাগিয়ে স্পেনকে হারিয়ে দিল মরক্কো

শক্তির বিচারে পিছিয়ে থাকলেও মরক্কোর মাঠের খেলায় পাওয়া গেলো না সেই ছাপটুকুও। কাউন্টার অ্যাটাকে বেশ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.