আর্জেন্টিনাকে কাঁদিয়ে ফাইনালে জার্মানি

গল্পটা যেন বদলালো না আর্জেন্টিনার জন্য। মূল দলের বিশ্বকাপ স্বপ্ন বেশ কয়েকবারই ভেঙেছিল জার্মানি। ১৯৯০ আর ২০১৪ বিশ্বকাপের ফাইনালে জার্মানির কাছেই হেরেছিল নীল-সাদারা। এবার ছোটদের ফুটবলেও দেখা গেল একই ঘটনা। অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে জার্মানির বিপক্ষে টাইব্রেকারের হারে স্বপ্ন ভাঙল তাদের।

ইন্দোনেশিয়ার সুরাকার্তায় প্রথমার্ধে এগিয়ে থেকেও শেষ পর্যন্ত ফাইনালে যাওয়া হলো না আর্জেন্টাইন তরুণদের। দ্বিতীয়ার্ধের দুর্দান্ত ফুটবলে দারুণ এক কামব্যাকের গল্প লিখল জার্মান তরুণরা। শেষ মুহূর্তে রুবের্তো সমতা আনলেও টাইব্রেকারে ভাগ্যটা বদল হয়নি তাদের। ৪-২ গোলে জিতে ২ ডিসেম্বরের ফাইনালে চলে গেল জার্মানরা। সেখানে তাদের প্রতিপক্ষ হবে ফ্রান্স ও মালির ম্যাচে বিজয়ী দল।

ম্যাচের শুরুতে এগিয়ে গিয়েছিল জার্মান তরুণরাই। দ্রুতগতির কাউন্টার অ্যাটাকে আর্জেন্টাইন বক্সে চলে যান মিডফিল্ডার ডারউইচ। তার পা থেকে বল যায় ব্রুনারের পায়ে। আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার গোরোসিতোকে পাশ কাটিয়ে দুরূহ কোণ থেকে শট নেন প্যারিস ব্রুনার। বুরুশিয়া ডর্টমুন্ডে খেলা এই উইঙ্গারের গোলে লিড পায় জার্মানি।

গোল খেয়ে জার্মানির উপর চেপে বসে আর্জেন্টিনা। দুই ফুলব্যাক অন্তিভেরো এবং গোরোসিতো মিলে বারবার ব্যস্ত করেছেন জার্মানির রক্ষণভাগকে। প্রথম গোলের উৎসও ছিলেন গোরোসিতো। বক্সের ভেতর থেকে তার মাপা ক্রস খুঁজে নেয় রুবের্তোকে। বল জালে জড়াতে কোনো ভুল করেননি তিনি। আর প্রথমার্ধের একেবারে অন্তিম সময়ে কাউন্টার অ্যাটাকে নিজের ও দলের দ্বিতীয় গোলও করেন রুবের্তো।

এরপর দ্বিতীয়ার্ধে দারুণ এক প্রত্যাবর্তন ঘটায় জার্মানি। গোলরক্ষকের ভুলে বল পেয়ে ডি বক্সের বাইরে থেকে দুর্দান্ত ফিনিশিংয়ে জার্মানিকে সমতায় ফেরান ব্রুনার। এরপর আর্জেন্টিনার বিপদ আরও বাড়ে ম্যাক্স মোরেশডাটের গোলে। ডি বক্সে ফাঁকায় বল পেয়ে হেডে বল জালে জড়ান এই স্ট্রাইকার।

আর্জেন্টিনার হার যখন সময়ের ব্যাপার তখনই আরো একবার দলকে পথ দেখান রুবের্তো। যোগ করা ৮ মিনিটের শেষ সময়ে গোল করে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন ‘দ্য জায়ান্ট’ খ্যাত এই তরুণ।

টুর্নামেন্টের ফরম্যাট মেনে খেলা চলে যায় টাইব্রেকারে। যেখানে নায়ক বনে যান জার্মান গোলরক্ষক কনস্ট্যান্টিন হেইডি। আর্জেন্টিনার প্রথম দুই শট ঠেকিয়ে দলকে অনেকটাই এগিয়ে দেন তিনি। গোল মিস করেছেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক এচেভেরিও। শেষ পর্যন্ত ৪-২ গোলের (টাইব্রেকার) হারে ফাইনালের স্বপ্ন স্বপ্নই রয়ে গেল আর্জেন্টিনার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *