Home / সর্বশেষ / ৯ বছর পর ন্যু ক্যাম্পে ফিরছেন জোসে মরিনিও

৯ বছর পর ন্যু ক্যাম্পে ফিরছেন জোসে মরিনিও

বার্সেলোনার মাঠ ন্যু ক্যাম্প আর জোসে মরিনিও, শব্দ দুটো পাশাপাশি উচ্চারণ করলে প্রথমেই ভেসে ওঠে ছবিটা। হারের বিষাদে নীল কাতালান দলটি, আর তাদের ‘আউট অফ ফোকাসে’

ঝাপসা বানিয়ে ডান হাতের তর্জনি তুলে দিগ্বিদিক ছুটে বেড়াচ্ছেন মরিনিও। সেই দৃশ্যটা আগামী ৬ আগস্ট আবারও ফিরছে ন্যু ক্যাম্পে। যদিও প্রীতি ম্যাচ ‘হোয়ান গ্যাম্পার ট্রফি’, তাও ফেরা তো হচ্ছে!

ইন্টার মিলানের কোচ থাকাকালীন সেই বিখ্যাত দৌড়ের পর অবশ্য আরও অনেক বার ন্যু ক্যাম্পে এসেছেন মরিনিও। বড় বড় সব ব্যবধানে হেরেছেনও। তবু বার্সেলোনার মাঠের সঙ্গে তার সম্পর্কটার

‘হাইলাইটস’ হয়ে আছে সেই দৌড়টাই। তবে মরিনিও এই মাঠে সবশেষ আনুষ্ঠানিক ম্যাচটাও জিতেছিলেন। ২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে কোপা দেল রের সেমিফাইনালে বার্সাকে ৩-১ গোলে হারিয়েছিল তার দল রিয়াল মাদ্রিদ।

মরিনিও অবশ্য বার্সার হয়েও ন্যু ক্যাম্পে ছিলেন বহু দিন। ১৯৯৬ সালে কাতালানদের সাবেক কোচ ববি রবসনের দোভাষী হয়ে গিয়েছিলেন সেখানে। পরে লুই ফন হালের সহকারী কোচ হিসেবে ছিলেন ২০০০ সাল পর্যন্ত।

অবশেষে সেই বার্সেলোনাতেই তার ফেরার উপলক্ষ্য তৈরি হয়েছে এবার, হোয়ান গ্যাম্পার ট্রফিতে আগামী ৬ আগস্ট তার দল রোমা মুখোমুখি হবে কাতালানদের। ১৯৬৬ সালে যাত্রা শুরু হোয়ান গ্যাম্পার ট্রফির।

এর পর থেকে প্রতি মৌসুমের শুরুতেই আমন্ত্রণমূলক এই টুর্নামেন্টটি বার্সেলোনার মাঠ ন্যু ক্যাম্পে খেলা হয়। গেল বছর সবশেষ আসরে লিওনেল মেসিকে হারানোর ঠিক পরের ম্যাচে বার্সা মুখোমুখি হয়েছিল জুভেন্তাসের। সেই ম্যাচে দলটি জিতেছিল ৩-০ ব্যবধানে।

রোমার জন্য অবশ্য এই ট্রফি নতুন নয়। ২০১৫ সালে এই টুর্নামেন্টে খেলেছে দলটি। সেই ম্যাচে বার্সা জিতেছিল ৩-০ ব্যবধানে। তবে এবার জোসে মরিনিওর উপস্থিতিতে যে ম্যাচটা বাড়তি ঝাঁজ পাবে, তা বলাই বাহুল্য।

Check Also

লিটন কিংবা সোহান নয়, বাংলাদেশ দলের জন্য স্মার্ট অধিনায়ক খুঁজে পেল বিসিবি

সীমিত ওভারের ফরম্যাটে বাংলাদেশের সবচেয়ে নির্ভর যোগ্য ব্যাটসন্যানের নাম বললে সেখানে আফিফ হোসেনের নাম থাকবেই। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.