Home / সর্বশেষ / সবাইকে পিছনে ফেলে আইসিসি র‍্যাংকিংয়ে নতুন ইতিহাস গড়লেন বাবর-ইমাম

সবাইকে পিছনে ফেলে আইসিসি র‍্যাংকিংয়ে নতুন ইতিহাস গড়লেন বাবর-ইমাম

এতটা দারুণ সময় পাকিস্তান ক্রিকেটে শেষ কবে চলেছে, গবেষণার বিষয় বটে! ব্যর্থতার ছিটেফোঁটা মাঝেমধ্যে থাকলেও মাঠে নিয়মিত একের পর এক সাফল্যের গল্প লিখে চলেছে বাবর আজমের দল, মাঠের বাইরেও সেটির স্বীকৃতি মিলছে নিয়মিত।

এই তো কয় দিন আগে ভারতকে টপকে ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ের চার নম্বরে ওঠার খবর এসেছিল। অধিনায়ক বাবর আজম কয় দিন আগে ভারতের কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকারকে

ছাড়িয়ে গিয়েছিলেন ক্যারিয়ার-সর্বোচ্চ রেটিং পয়েন্টের হিসাবে। টেন্ডুলকারের ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ রেটিং ছিল ৮৮৭, বাবরের তখন ছিল ৮৯১। সেটি আরও বেড়েছে। এই মুহূর্তে ওয়ানডেতে ব্যাটসম্যানদের আইসিসি র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থাকা বাবরের রেটিং পয়েন্ট ৮৯৮।

তবে বাবরের পাশাপাশি ইমাম-উল-হকও তো অবিশ্বাস্য ছন্দে আছেন, দুজনের সৌজন্যে পাকিস্তানের ক্রিকেটে অনন্য এক কীর্তি হলো। আজ প্রকাশিত আইসিসির

ওয়ানডে ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে বাবরের পর তালিকার দুইয়ে ইমামই আছেন। আইসিসির র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে পাকিস্তানের দুই ব্যাটসম্যান—এমনটা আর কখনো দেখা যায়নি বলেই জানাচ্ছে আইসিসি।

দুই দিন আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শেষ হওয়া তিন ওয়ানডের সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে জিতেছে পাকিস্তান। এ সিরিজের আগে ইমাম র‍্যাঙ্কিংয়ের তিন নম্বরে ছিলেন, দুইয়ে ছিলেন ভারতের বিরাট কোহলি।

উইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের তিন ম্যাচেই অর্ধশতক দেখেছে ইমামের ব্যাট, রেটিং পয়েন্টও বেড়েছে। অবশ্য এই তিন ম্যাচই কেন, এর আগের চার ম্যাচেও তো ৫০ বা তার বেশি রানের ইনিংস ইমামের।

টানা সাত ইনিংসে ৫০ ছোঁয়া ইমামের চেয়ে ওয়ানডেতে মাত্র একজনই টানা বেশি ইনিংসে ৫০ ছুঁয়েছেন। ৯ ইনিংসে অর্ধশতকের রেকর্ড পাকিস্তানেরই কিংবদন্তি জাভেদ মিয়াঁদাদের।

সিরিজের আগে ইমামের রেটিং পয়েন্ট ছিল ৭৯৫, কোহলির ৮১১। বাবর তখনই ৮৯১ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ছিলেন। প্রথম দুই ম্যাচে ৬৫ ও ৭২ রানের ইনিংসের পরই কোহলির সমান ৮১১ রেটিং পয়েন্ট হয়ে যায় ইমামের, তখনই র‍্যাঙ্কিংয়ে দুইয়ে উঠে আসেন।

গত রোববার তৃতীয় ওয়ানডেতে আবার ৬২ রানের ইনিংসের পর ইমামের রেটিং কোহলির চেয়ে আরও ৪ পয়েন্ট বেড়েছে (৮১৫)। ৮৯৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে বাবর, দুইয়ে ৮১৫ পয়েন্ট পাওয়া ইমাম…ওয়ানডেতে ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দুইয়ে নিজেদের দুই ব্যাটসম্যানকে এর আগে কখনো দেখেনি পাকিস্তান।

বাবর-ইমাম আর পাকিস্তানের খবরের বাইরে ওয়ানডেতে ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দশে তেমন বদল হয়ইনি। শুধু ৯ আর ১০ নম্বরে দুই অস্ট্রেলিয়ানের অদলবদল হয়েছে—অ্যারন ফিঞ্চ এক ধাপ এগিয়ে উঠেছেন ৯ নম্বরে, ডেভিড ওয়ার্নার এক ধাপ পিছিয়ে ১০-এ।

সেরা বিশে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যান বলতে শুধু ১৬ নম্বরে মুশফিকুর রহিম আর ২০ নম্বরে তামিম ইকবাল আছেন। ৩০-এর মধ্যে আছেন সাকিব আল হাসান (২৫) আর লিটন দাসও (৩০। শীর্ষ ৫০-এ পাঁচ বাংলাদেশির অন্যজন মাহমুদউল্লাহর র‍্যাঙ্কিং ৩৭।

ওয়ানডেতে বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে অবশ্য সেরা দশেই বাংলাদেশের প্রতিনিধি আছেন—মেহেদী হাসান আগের মতোই ৮ নম্বরে, ১০ নম্বরে সাকিবের অবস্থানও অপরিবর্তিত। সেরা ৫০-এ আর আছেন শুধু মোস্তাফিজুর রহমান (১৭) ও তাসকিন আহমেদ (৩৫)।

র‍্যাঙ্কিংয়ের সেরা দশে বদল বলতে ইংল্যান্ডের ক্রিস ওকস দুই ধাপ পিছিয়ে ৭ নম্বরে নেমে গেছেন, এ সুযোগে ৫ ও ৬ নম্বরে উঠে এসেছেন যথাক্রমে ভারতের যশপ্রীত বুমরা ও আফগানিস্তানের মুজিব উর রহমান। শীর্ষে নিউজিল্যান্ডের ট্রেন্ট বোল্টই আছেন। অলরাউন্ডারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে সেরা দশে কোনো বদল নেই। শীর্ষে আছেন সাকিব।

Check Also

ফ্রি কিকে মেসিকে ছাড়া অন্য কাউকে ভরসা করা যায়না পিএসজি কোচ গালতিয়ের

দারুণ ছন্দে আছেন লিওনেল মেসি। গেল মৌসুমের ব্যর্থতা কাটিয়ে ধীরেধীরে নিজের জাত চেনাতে শুরু করেছেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.