Home / খেলার খবর / নেট অনুশীলনে মুস্তাফিজকে ‘ডিউক’ বলের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছেন ডোনাল্ড

নেট অনুশীলনে মুস্তাফিজকে ‘ডিউক’ বলের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছেন ডোনাল্ড

ক্রিকেট উইন্ডিজ প্রেসিডেন্ট একাদশের বিরুদ্ধে তিনদিনের একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচের দ্বিতীয় দিনের সকালে বাংলাদেশ দল ৩১০ রানে নিজেদের প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে। এরপর বল হাতে নামেন টাইগাররা বোলাররা।

তবে ম্যাচের পঞ্চাশ ওভার শেষেও সন্ধান মেলেনি পেসার মুস্তাফিজুর রহমানের। খোঁজ নিয়ে জানা গেল, প্রস্তুতি ম্যাচ না খেলে পেস বোলিং কোচ অ্যালান ডোনাল্ডেকে নিয়ে নেট অনুশীলন করছেন এই বাঁহাতি। যেখানে মুস্তাফিজকে ‘ডিউক’ বলের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছেন ডোনাল্ড।

‘পরিচয়’ শব্দটা শুনে খটকা লাগতে পারে। বাংলাদেশসহ বিশ্বের প্রায় সকল দেশেই লঙ্গার ভার্সন ফরম্যাটের খেলা হয় কুকাবুরা বলে। শুধুমাত্র ইংল্যান্ড আর ওয়েস্ট ইন্ডিজে ডিউক বলে টেস্ট ও চারদিনের ম্যাচ খেলা হয়। মুস্তাফিজ বাংলাদেশের জার্সিতে অভিষেকের পর ইংল্যান্ডে কখনো টেস্ট খেলতে যায়নি বাংলাদেশ দল। ২০১৮ সালে ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জে ২টি টেস্ট খেললেও সেই সফরে এই ফরম্যাটে ছিলেন না মুস্তাফিজ।

বাধ্য হয়ে তাই কুকাবুরা ছেড়ে সেলাই করা উঁচু সিমের ডিউক বলের সঙ্গে পরিচয় পর্ব সেরে নিলেন কাটার স্পেশালিস্টের তকমা পাওয়া বাঁহাতি পেসার। রোববার এক ভিডিও বার্তায় পুরো ব্যাপারটি ব্যাখ্যা করেন ডোনাল্ড।

ডোনাল্ড বলছিলেন, ‘এবার কুকাবুরা থেকে ডিউক বলে যাওয়ার পালা। এই বলের সঙ্গে আমি বেশ পরিচিত। ইংল্যান্ডে দীর্ঘদিন কাউন্টি ক্রিকেট ও টেস্ট খেলেছি এই বলে। এই বলের সিম বেশ খাড়া। যার সঙ্গে আমাদের বোলারদের মানিয়ে নিতে হবে।’

২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে সর্বশেষ টেস্ট খেলেছেন মুস্তাফিজ, প্রায় দেড় বছর আগে চট্টগ্রামে সেই টেস্টে প্রতিপক্ষ ছিল এই উইন্ডিজ। এই দীর্ঘ সময়ে লাল বলের সঙ্গে সম্পর্কটা মলিন হয়েছে বাঁহাতি পেসারের। এমনকি প্রায় এক মাসের ওপরে ছুটিতে ছিলেন মুস্তাফিজ। এ সময় কোনোপ্রকার অনুশীলনও করেননি তিনি।

এবারের আইপিএলে মুস্তাফিজ সাকুল্যে ৮টি ম্যাচ খেলেছেন। যার সর্বশেষটি ছিল গত ১ মে। দীর্ঘদিন ম্যাচের বাইরে থাকায় ক্রিকেটের সঙ্গে দূরত্ব বেড়েছে তার।

ডিউক বল দিয়ে অনুশীলনে ফেরা মুস্তাফিজকে নিয়ে ডোনাল্ড বলছিলেন, ‘আজ মোস্তাফিজের সঙ্গে একটা সেশন করেছি। আইপিএলের পর আজই তার প্রথম বল করা। তাকে এই বল সম্পর্কে কিছুটা ধারণা দিয়েছি। এই বলে তারও প্রথম বোলিং করা। গ্রিপও কিছুটা পরিবর্তন করেছি। সেও বোলিং করে উপভোগ করেছে।’

পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে ২০১৮ সালের পর আবার উইন্ডিজ সফরে গেছে বাংলাদেশ দল। যেখানে ২ টেস্টের সঙ্গে সমান ৩টি করে টি-টোয়েন্টি আর ওয়ানডে সিরিজ খেলবে সফরকারীরা। সাদা পোশাকের ফরম্যাট দিয়ে ১৬ জুন মাঠে গড়াবে দুই দলের লড়াই।

Check Also

দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুটাও তেমন ভালো হয়নি বাংলাদেশ দলের

অ্যান্টিগা টেস্টে প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুটাও তেমন ভালো হয়নি বাংলাদেশ দলের। তবে প্রথম …

Leave a Reply

Your email address will not be published.