Home / খেলার খবর / নেদারল্যান্ডসকে হারিয়ে সিরিজে এগিয়ে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ

নেদারল্যান্ডসকে হারিয়ে সিরিজে এগিয়ে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ

শেই হোপের অপরাজিত সেঞ্চুরির সঙ্গে শামারা ব্রুকস ও ব্রান্ডন কিংয়ের ফিফটিতে নেদারল্যান্ডসকে হারিয়ে সিরিজে এগিয়ে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ডাকওয়ার্থ-লুইস-স্টার্ন পদ্ধতিতে ক্যারিবিয়ানদের জয় ৭ উইকেটে।

স্থায়ীভাবে সাদা বলের নেতৃত্ব পাওয়া নিকোলাস পুরানের হাত ধরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের শুরুটা হলো জয় দিয়ে। ওয়ানডেতে ক্যারিবিয়ানদের টানা পাঁচ হারের বৃত্তও ভাঙল। আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লিগে তারা অর্জন করল মূল্যবান ১০ পয়েন্ট।

আমস্টেলভিনে মঙ্গলবার (৩১ মে) বৃষ্টির কারণে ৪৫ ওভারে নেমে আসা ম্যাচে নেদারল্যান্ডস ৭ উইকেটে করে ২৪০ রান। ২৪৭ রানের নতুন লক্ষ্য ওয়েস্ট ইন্ডিজ পেরিয়ে যায় ১১ বল হাতে রেখে।

ইনিংস শুরু করে ১৩০ বলে ১১৯ রানের ইনিংস খেলে ম্যাচের সেরা হোপ। ১২ চার ও ২ ছক্কায় গড়া তার ইনিংসটি। পাঁচে নেমে ৫১ বলে ৫ চার ও ২ ছক্কায় অপরাজিত ৫৮ রান করেন কিং। ব্রুকসের ব্যাট থেকে আসে ৬৭ বলে ৬০ রান।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ম্যাক্স ও’ডাওড ও বিক্রমজিত সিংয়ের ৬৩ রানের উদ্বোধনী জুটিতে নেদারল্যান্ডসের শুরুটা হয় ভালো। ৪৫ বলে ৬ চার ও ২ ছক্কায় ৪৭ রান করা বিক্রমজিতকে এলবিডব্লিউ করে জুটি ভাঙেন আকিল হোসেন। হেইডেন ওয়ালশের বলে বোল্ড হওয়া ও’ডাওড ৬৯ বলে করেন ৩৯ রান। মুসা আহমেদ, বাস ডে লেডে, স্কট এডওয়ার্ডস ও অধিনায়ক পিটার সিলাররা কেউ ভালো করতে পারেননি। ডাচরা ৩১.৩ ওভারে ৪ উইকেটে ১৪৬ তোলার পর নামে বৃষ্টি। পরে ম্যাচের দৈর্ঘ্য কমে এলে তেজা নিদামানুরুর ৫১ বলে অপরাজিত ৫৮ রানের সুবাদে আড়াইশর কাছাকাছি পুঁজি পায় স্বাগতিকরা। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে আকিল হোসেন ও কাইল মেয়ার্স নেন ২টি করে উইকেট।

লক্ষ্য তাড়ায় হোপের সঙ্গে ১২০ রানের উদ্বোধনী জুটিতে ভিত গড়ে দেন ব্রুকস। এরপর অবশ্য দ্রুত ৩ উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। লোগান ফন বিক পরপর দুই বলে ফিরিয়ে দেন ব্রুকস ও এনক্রমা বনারকে। অধিনায়ক পুরান বিদায় নেন ১১ বলে ৭ রান করে। সেই ধাক্কা সামাল দিয়ে ১০০ বলে অবিচ্ছিন্ন ১১৬ রানের জুটিতে দলের জয় নিয়ে ফেরেন হোপ ও কিং। ৫৮ বলে পঞ্চাশ ছোঁয়া হোপ তিন অঙ্ক স্পর্শ করেন ১১৩ বলে। এটি তার একাদশ ওয়ানডে সেঞ্চুরি। আগামী বৃহস্পতি ও শনিবার হবে সিরিজের বাকি দুই ম্যাচ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
নেদারল্যান্ডস: ৪৫ ওভারে ২৪০/৭ (বিক্রমজিত ৪৭, ও’ডাওড ৩৯, মুসা ১৩, ডে লেডে ১৭, এডওয়ার্ডস ১৩, নিদামানুরু ৫৮*, সিলার ১৪, ফন বিক ১১, ক্লেইন ২*; জোসেফ ৯-০-৩৬-১, ফিলিপ ৯-০-৬৬-১, মেয়ার্স ৯-১-৫০-২, আকিল ৯-০-২৯-২, ওয়ালশ ৯-০-৪৭-১)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: (৪৫ ওভারে লক্ষ্য ২৪৭) ৪৩.১ ওভারে ২৪৯/৩ (হোপ ১১৯*, ব্রুকস ৬০, বনার ০, পুরান ৭, কিং ৫৮*; ফন বিক ৮-১-৪৯-২, কিংমা ৭-০-৪৭-০, ক্লেইন ৭.১-০-৩৮-০, সিলার ৯-০-৩৬-০, আরিয়ান ৪-০-৩২-০, ডে লেডে ৪-০-৩২-০)
ফল: ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৭ উইকেটে জয়ী (তিন ম্যাচ সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ), ম্যান অব দা ম্যাচ: শেই হোপ।

Check Also

দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুটাও তেমন ভালো হয়নি বাংলাদেশ দলের

অ্যান্টিগা টেস্টে প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুটাও তেমন ভালো হয়নি বাংলাদেশ দলের। তবে প্রথম …

Leave a Reply

Your email address will not be published.