Home / সর্বশেষ / আইপিএলে মুস্তাফিজের ১০ লক্ষ্য টাকার রেকর্ড

আইপিএলে মুস্তাফিজের ১০ লক্ষ্য টাকার রেকর্ড

সালটা ২০১৬, প্রথমবারের মতো দেশের বাইরে কোন লীগে খেলতে গেছেন মোস্তাফিজ। আর প্রথমবারের জাদুকরী মোস্তাফিজ কেড়েছেন পুরো ক্রিকেট বিশ্বের নজর।

দলকে জিতিয়েছেন শিরোপা আর প্রথম নন ভারতীয় হিসেবে জিতেছেন সেরা উদীয়মান ক্রিকেটারের পুরস্কার। ইপিএল ২০১৬ তে মোস্তাফিজুর রহমান খেলেন সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে।

আইপিএলের সেই আসরে নিজের দাপট অত্যঅত্যন্ত ভালোভাবেই প্রমাণ করেছেন বাংলাদেশের এই কাটার মাস্টার৷ নিজের বোলিং দিয়ে অন্য দলের ব্যাটসম্যানদের রীতিমতো ভুগিয়েছেন তিনি৷

দানবীয় ব্যাটিং করা আন্দ্রে রাসেলকেও নিজের বোলিং দিয়ে কাবু করেছিলেন ফিজ। অসাধারণ এক ইয়োর্কার ডেলিভারিতে রাসেল হয়ে যান বোল্ড আউট।

সবচেয়ে দৃষ্টিনন্দক ব্যাপার ছিলো মোস্তাফিজের ঐ ডেলিভারি সামলাতে না পেরে পড়ে যান আন্দ্রে রাসেল। মোস্তাফিজের সেই উইকেটটি আইপিএলের আসরের একটি স্মরণীয় উইকেট। সে বছরই আইপিএলে ক্রিকেট বিশ্বে তার নামকরণ করা হয় ‘দ্যা ফিজ’ নামে।

সেইবার আইপিএলে খেলা ১৬ ম্যাচে ১৭ উইকেট নিয়েছেন মোস্তাফিজ। শুধুমাত্র পরিসংখ্যানের এই ছোট তথ্যে বোঝা যাচ্ছে না, ঠিক কতোটা প্রভাব বিস্তার করে আইপিএল খেলেছেন মোস্তাফিজ। তার বলে ব্যাটসম্যানদের যে কতোটা সমস্যা হয়েছে, সেটাও লেখা নেই পরিসংখ্যানে।

অথচ সেইবারই প্রথম দেশের বাইরে এতো বড় একটা টুর্নামেন্ট খেলতে গেলেন তিনি। বিশ্বকাপেও গিয়েছিলেন বটে, কিন্তু তখন তো ছিলেন দলের সঙ্গে। এবার একা। একদিকে চেনা মানুষদের অভাব, তার উপর বড় টুর্নামেন্ট; মোস্তাফিজ সব চাপ উড়িয়ে দেন দুর্দান্ত বোলিংয়ে।

আইপিএল শুরু করেন ওয়াটসনকে আউট করে, শেন ওয়াটসনের পাশাপাশি হার্দিক পান্ডে, রবিন্দ্র জাদেজাকেও দুইবার করে আউট করেন মুস্তাফিজ। সব মিলিয়ে আইপিএল শেষে সেরা উদীয়মান ক্রিকেটার হিসেবে মোস্তাফিজের আশপাশেও কেউ ছিলেন না।

আইপিএলের সবগুলো আসরের দিকে তাকালে লক্ষ্য করা যায় আইপিএলের সবগুলো আসরে ইমার্জিং প্লেয়ার অ্যাওয়ার্ডটি জিতেছে ভারতীয় খেলোয়াড়রা৷ কেবল একটি মাত্র আসরে ভারতীয় খেলোয়াড়রা এই অ্যাওয়ার্ডটি জিততে পারেনি। সেটি হলো আইপিএলের ৮ম তম আসর।

যে বছর মোস্তাফিজ খেলেছেন সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে। আর সেই বছরই তুলে নেন ইমার্জিং প্লেয়ার অ্যাওয়ার্ডটি। মোস্তাফিজুর রহমানই একমাত্র বিদেশি খেলোয়াড় যিনি আইপিএলে এই অ্যাওয়ার্ডটি জিতে এক অনন্য রেকর্ড স্থাপন করেছেন। সাথে পেয়েছিলেন ১০ লক্ষ্য রুপির চেক।

২০২২ আইপিএলেও এর ব্যতিক্রম হয়নি। ২০২২ আইপিএলের ইমার্জিং প্লেয়ার হয়েছেন উমরান মালিক। এখন পর্যন্ত আইপিএলের ১২ আসরে উদীয়মান ক্রিকেটারের পুরস্কার জিতেছেন যারা…

২০০৮ – শ্রীভাস্ত ঘোসওয়ামি ২০০৯ – রোহিত শর্মা ২০১০ – সৌরভ তিওয়ারি ২০১১ – ইকবাল আব্দুল্লাহ ২০১২ – মান্দিপ সিং ২০১৩ – সাঞ্জু স্যামসন

২০১৪ – আক্সার পাটেল ২০১৫ – শ্রেয়স আইয়ার ২০১৬ – মোস্তাফিজুর রহমান ২০১৭ – বাসিল থাম্পি ২০১৮ – রিষব পন্ত ২০১৯ – সুভাম গিল।

২০২০ – দেবদূত পাড্ডিকাল ২০২১ – রুতুরাজ গায়কোয়ান্ড ২০২২ – উমরান মালিক

Check Also

যে কৃষক ভালো, তার ফসলও ভালো: মাহিয়া মাহি

আজ চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ (গোমস্তাপুর, নাচোল, ভোলাহাট) আসনে মুহা. জিয়াউর …

Leave a Reply

Your email address will not be published.