Home / খেলার খবর / মাশরাফি-তাসকিনের পরামর্শে দুঃসময় কাটানোর প্রেরণা পাচ্ছেন অভিষেক

মাশরাফি-তাসকিনের পরামর্শে দুঃসময় কাটানোর প্রেরণা পাচ্ছেন অভিষেক

মাশরাফি বিন মুর্তজা পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং ইউনিটের হাল ধরেছেন তাসকিন আহমেদ। তাতে ভাগ্যও যেন তারই আইডল মাশরাফির মতো বিমাতাসুলভ আচরণ করছে।

একের পর এক ইনজুরিতে মাঠের থেকে বাইরেই বেশি কাটাতে হচ্ছে ডানহাতি পেসারকে। মাশরাফি তো বেশ দূরে, এমনকি তাসকিনকে ছোঁয়ার মতো অবস্থান এখনো তৈরি করতে পারেননি অভিষেক দাস অরণ্য। কিন্তু ইনজুরি ভাগ্যে দুইজনকেই যেন পেছনে ফেলে দিচ্ছেন তিনি।

অভিষেকের নাম শুনে ভ্রু কুঁচকে যেতে পারে। অনেকেই স্মৃতির পাতা হাতড়াতে শুরু করেছেন। এই পেস বোলিং অলরাউন্ডার জাতীয় দলের আশেপাশেও যে নেই, এমনকি ঘরোয়া ক্রিকেটে লিস্ট-এ ম্যাচই খেলেছেন একটি।

প্রথম শ্রেণি আর টি-টোয়েন্টি খেলার অভিজ্ঞতার ঝাঁপি একেবারে শূন্য। তবে অভিষেক নিজের পরিচয় ঠিকই তৈরি করে নিয়েছেন বয়সভিত্তিক পর্যায়ে। বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে সবথেকে বড় যে অর্জন, সেই অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য।

২০২০ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি ভারতের বিপক্ষে ফাইনালে ব্যাট হাতে সুবিধা করতে না পারলেও আগুনে বোলিংয়ে পুড়িয়েছেন প্রতিপক্ষকে। তুলে নেন ৩ উইকেট। এরপর দেশে ফিরে ঘরোয়া ক্রিকেটের ওই একটিমাত্র ম্যাচ খেলেন ২০২০ সালের ১৫ মার্চ।

এরপর ক্যালেন্ডারের পাতা উল্টাতে উল্টাতে কেটে ২৬ মাস। আর ব্যাট-বল নিয়ে মাঠের লড়াইয়ে ফেরা হয়নি অভিষেকের। পিঠের চোটে এক দেশ থেকে আরেক দেশ, এক হাসপাতাল থেকে আরেক হাসপাতালে ছুটছেন তিনি।

সবশেষ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের উদ্যোগে গত ৪ মে ইংল্যান্ড যান অপারেশন করাতে। তবে সেখানকার ডাক্তার পরামর্শ দিয়েছেন, ইনজেকশনের মাধ্যমেই ভালো হবে তার এই ব্যথা। সম্প্রতি দেশে ফিরেছেন অভিষেক। ইংল্যান্ড থেকে একটি ব্যথানাশক ইনজেকশন দিয়ে আপাতত দুই সপ্তাহের বিশ্রামে আছেন।

অভিষেক বলছিলেন, ‘আমি অপারেশনের জন্য ইংল্যান্ড গিয়েছিলাম। ওখানকার ডাক্তারের সাথ পরামর্শের পর তিনি বললেন যে, অপারেশন লাগবে না। যেহেতু বিকল্প হিসেবে ইনজেকশন আছে, সেজন্য ইনজেকশন দেওয়াই ভালো। ওখান থেকে একটা ইনজেকশন দিয়ে এসেছি। এখন এটার জন্য আমাকে ১৫ দিন অপেক্ষা করতে হবে। ইনজেকশনটা যদি কাজে আসে, সেক্ষেত্রে আমাকে আরেকবার টেস্ট করাতে হবে।’

Check Also

দুর্দান্ত খেলেও শেষ মুহুর্তে দুই গোল খেয়ে বিশ্বকাপ শুরু করলো মানের সেনেগাল

বিশ্বকাপে আগে কখনোই গ্রুপপর্বে আফ্রিকার কোন দলের কাছে হারেনি নেদারল্যান্ডস। অন্য দিকে সেনেগালও বিশ্বকাপে দু …

Leave a Reply

Your email address will not be published.