Home / খেলার খবর / তিন পেসার দুই স্পিনার নিয়ে প্রথম টেস্টে মাঠে নামছে বাংলাদেশ দেখেনিন ১১ সদস্যের সেরা একাদশ

তিন পেসার দুই স্পিনার নিয়ে প্রথম টেস্টে মাঠে নামছে বাংলাদেশ দেখেনিন ১১ সদস্যের সেরা একাদশ

ঘনিয়ে এসেছে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের সময়। বাংলাদেশে পা রাখার পর বিকেএসপিতে দুইদিনের অনুশীলন ম্যাচ শেষ করেই শুরু হয়ে যাবে দুই দলের মূল পর্বের লড়াই।

সাদা পোশাকের মর্যাদার এই লড়াইয়ের নিজেদের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করতে পারবে কোন দল সেটা বলে দিবে মাঠের লড়াই। তবে ঘরের মাঠে লঙ্কানদের বিপক্ষে পরিকল্পনায় যে বিন্দুমাত্র ছাড় দিবে না টাইগাররা তা জলের মতই পরিষ্কার।

লঙ্গার ভার্সনের এই ফরম্যাটের প্রথম ম্যাচে কেমন হতে পারে বাংলাদেশ দলের একাদশ তা এবার দেখে নেয়া যাক।বাংলাদেশ দলের ইনিংস উদ্বোধন করার জন্য ১৭ সদস্যের স্কোয়াডে রয়েছেন দুইজন ওপেনার।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজে তৃতীয় ওপেনার হিসেবে সাদমান ইসলাম থাকলেও বাজে পারফরম্যান্সের কারনেই তাকে ছেঁটে ফেলা হয়েছে স্কোয়াড থেকে।

বাকি দুই ওপেনার হিসেবে রয়েছেন তামিম ইকবাল ও মাহমুদুল হাসান জয়। তামিমের অভিজ্ঞতার সাথে জয়ের জুটি প্রোটিয়াদের বিপক্ষে ম্যাচে খুব একটা না জমলেও ঘরের মাটিতে দেখা যেতে পারে চিরচেনা তামিমকে।

তিন নম্বরে ব্যাট হাতে ধারাবাহিকতার পরিচয় দিয়ে আসছেন নাজমুল হোসেন শান্ত। সাদা পোশাকে দলের অন্যতম শক্তির যোগানও দিয়ে যাচ্ছেন এই ব্যাটার।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তাদের মাটিতেই রেকর্ড গড়া ১৬৩ রানের ইনিংসটাও খেলেছিলেন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই। তাই লঙ্কানদের বিপক্ষে ম্যাচেও তাকেই দেখা যেতে পারে তিন নম্বরে।

অধিনায়ক মুমিনুল হক নিজের ঘরের মাঠ সাগরিকায় চার নম্বরে ব্যাট হাতে নিজেকে খুঁজে পাওয়ার মিশনেই নামবেন। সম্প্রতি বেশ কয়েকটি ম্যাচে রানের দেখা না পাওয়া মুমিনুল সাগরিকার চিরচেনা উইকেটে ব্যাটিং ঝলক দেখিয়ে লঙ্কানদের বিপক্ষে প্রতিরোধ হয়ে দাঁড়াতে পারেন।

ব্যাটিং লাইনআপ লম্বা হওয়ার বাকি রয়েছে আরও। সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিমের সাথে সাত নম্বরে দেখা যেতে পারে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা লিটন দাসকে। দলে সাকিব আল হাসান যুক্ত হওয়াতে অবশ্য একাদশে জায়গা হারাতে হবে ইয়াসির আলি রাব্বিকে।

ব্যাটিং বিভাগের হিসেবের খাতা বন্ধ করে নজর দেয়া যাক বোলিং বিভাগে। সাগরিকার উইকেটে পেসাররা বাড়তি সহয়তা পেয়ে থাকে সবসময়। সাগরের ক্ষিপ্র গতির ঢেউ যেখানে পেসারদের গতির সাথে মিলেমিশে একাকার হয়ে যায় সেখানে একাদশেও একজন বাড়তি পেসার আবশ্যক।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ চলাকালে ইনজুরিতে পড়েছেন ডানহাতি গতিতারকা তাসকিন আহমেদ। ইতোমধ্যে চিকিৎসার জন্য দেশও ছেড়েছেন এই পেসার। ফলে অন্যতম সেরা এই পেসারের সার্ভিস মিস করবে বাংলাদেশ দল।

তাসকিনের সাথে ইনজুরিতে পড়া আরেক পেসার শরিফুল ইসলামকে নিয়ে সুখবর মিলেছে। টেস্ট সিরিজের গোটা সময় জুড়েই তাকে পাবে দল। ফলে শরিফুল ইসলামকে দেখা যেতে পারে মূল একাদশে।

প্রোটিয়াদের বিপক্ষে গতির ঝড় তুলে নতুন করে আলোচনায় থাকা খালেদ আহমেদকে দেখা যেতে পারে লঙ্কানদের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচের একাদশে। দলে তৃতীয় পেসার হিসেবে থাকবেন আরেক গতি তারকা এবাদত হোসেন।

লঙ্কানদের বিপক্ষে পেস আক্রমণে শক্তিশালী ইউনিট থাকার পাশাপাশি স্পিন বিভাগেও বেশ এগিয়ে থাকবে বাংলাদেশ দল। কেননা প্রোটিয়া সিরিজে সাকিব আল হাসানের সার্ভিস মিস করলেও লঙ্কা সিরিজে সাদা পোশাক গায়ে জড়িয়ে আবারও মাঠে নামছেন সাকিব।

তার সাথে স্পিন বোলিং বিভাগে আরেক বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলামের একাদশে থাকা অনেকটাই নিশ্চিত। দুই দলের মধ্যকার প্রথম টেস্ট ম্যাচটি শুরু হবে ১৫ই মে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে।

এক নজরে দেখে নেয়া যাক প্রথম টেস্টের জন্য টাইগারদের সম্ভাব্য সেরা একাদশ। তামিম ইকবাল, মাহমুদুল হাসান জয়, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস, তাইজুল ইসলাম, শরিফুল ইসলাম, এবাদত হোসেন এবং খালেদ আহমেদ।

Check Also

দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুটাও তেমন ভালো হয়নি বাংলাদেশ দলের

অ্যান্টিগা টেস্টে প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুটাও তেমন ভালো হয়নি বাংলাদেশ দলের। তবে প্রথম …

Leave a Reply

Your email address will not be published.