Home / খেলার খবর / রাহির ‘লবিং’ বিতর্কে মুখ খুললেন মাশরাফি

রাহির ‘লবিং’ বিতর্কে মুখ খুললেন মাশরাফি

আবু জায়েদ রাহি ইস্যুতে উত্তপ্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচের স্কোয়াডে জায়গা হয়নি ডানহাতি পেসারের। এরপর এক সাক্ষাৎকারে রাহি জানিয়েছেন, বাংলাদেশ দলে ‘লবিং’ চলে।

তার লবিং নেই জন্যই বাদ পড়েছেন দল থেকে। এরপর আলোচনা চারিদিকে, আসলেই কি ‘লবিং’ চলে দেশের ক্রিকেটে? এনিয়ে রীতিমত রুদ্রমূর্তি টিম ম্যানেজম্যান্ট আর বোর্ড পরিচালকরা। কারণ দর্শাতে রাহিকে শোকজ করেছে বিসিবি।

আজ (বৃহস্পতিবার) এই লবিং ইস্যুতে মিরপুরে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন বাংলাদেশ দলকে দীর্ঘদিন সার্ভিস দেওয়া সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। যেখানে রাহির কথার সত্যতা খুঁজে পাননি মাশরাফি।

জানালেন, দলে টিকে থাকতে হলে পারফরম্যান্স দিয়ে জায়গা ধরে রাখতে হবে। এজন্য বাইরে নিজেকে উন্মোচন না করে মাঠে উন্মোচন করা উচিত বলে মন্তব্য করেন ম্যাশ।

মাশরাফির ব্যাখ্যা, ‘বাংলাদেশ দলে এখন ফাস্ট বোলিংয়ে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা। বিশেষ করে সংক্ষিপ্ত সংস্করণে মারাত্মক প্রতিদ্বন্দ্বিতা। এখন টেস্টে তাসকিন, এবাদত ভালো খেলছে। শরিফুল সব ফরম্যাটে ভালো বোলিং করছে। এখন বাইরে নিজেকে উন্মোচন না করে মাঠে উন্মোচন করা উচিত।’

মাশরাফি সঙ্গে আরও যোগ করেন, ‘জাতীয় দলে লবিংয়ের কোনো সুযোগ নেই। এখানে পারফর্ম করলে খেলবেন, পারফর্ম না করলে খেলবেন না। আপনাকে এখানে শতভাগ পেশাদার হতে হবে। আপনাকে পারফর্ম করতে হবে। সবার জীবনেই খারাপ সময় আসে। যেটা রাহির যাচ্ছে। এত আলোচনা না করে আমি আশাবাদী, সে (ফেরার) উপায় খুঁজে বের করবে।’

রাহি কেন দল থেকে বাদ পড়েছেন সেটা নিজের যুক্তি দিয়ে তুলে ধরেছেন মাশরাফি। জানালেন, বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং বিভাগে এখন কতটা প্রতিদ্বন্দ্বিতা চলে।

মাশরাফি বলছিলেন, ‘অবশ্যই সে ভালো বোলার। তার একটা জিনিস ভালো লাগে, সে কখনো হাল ছাড়েনি। এখন তাসকিন, এবাদত ভালো বোলিং করছে। যেটা হয় আর কী, রুবেল (হোসেন) কিন্তু নিউজিল্যান্ডে খুব ভালো বোলিং করে এসেছে, সর্বশেষ সে বাংলাদেশের হয়ে যে ওয়ানডে খেলে এসেছে। ওই বোলিংয়ের পর রুবেলকে বাদ দেওয়ার সুযোগই নেই। কিন্তু ওর চেয়ে বেটার বোলিং করছে অন্যরা। এ কারণেই এটা হয়েছে। এটা একটা খেলোয়াড়ের জন্য হতাশার।’

Check Also

দুর্দান্ত খেলেও শেষ মুহুর্তে দুই গোল খেয়ে বিশ্বকাপ শুরু করলো মানের সেনেগাল

বিশ্বকাপে আগে কখনোই গ্রুপপর্বে আফ্রিকার কোন দলের কাছে হারেনি নেদারল্যান্ডস। অন্য দিকে সেনেগালও বিশ্বকাপে দু …

Leave a Reply

Your email address will not be published.