Home / খেলার খবর / বল হাতে আবারো একসাথে জ্বলে উঠলেন মাশরাফি এবং সাকিব। ১৫২ রানে অলআউট প্রাইম ব্যাংক

বল হাতে আবারো একসাথে জ্বলে উঠলেন মাশরাফি এবং সাকিব। ১৫২ রানে অলআউট প্রাইম ব্যাংক

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আজ হাইভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে মাশরাফি বিন মুর্তজা এবং সাকিব আল হাসানের লিজেন্ড অব রূপগঞ্জ এবং তামিম ইকবাল আনামুল হক বিজয়ের প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব। বিকেএসপির ৪ নম্বর মাঠে লিজেন্ড অব রূপগঞ্জ অধিনায়ক টস জিতে ব্যাটিংয়ে পাঠান প্রাইম ব্যাংককে।

আগের রাতের বৃষ্টিতে মাঠ ভেজা থাকায় ম্যাচ শুরু হতে সময় লাগে বেশ খানিকক্ষণ। তাতে ম্যাচ নেমে আসে ৩৩ ওভারে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ শেষে এই দিন ব্যাট হাতে ওপেনিংয়ে নামেন তামিম ইকবাল। ছক্কা দিয়ে ইনিংস শুরু করলেও খেলতে পারেননি পাঁচ বলের বেশি।

আসরে নিজের প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমে সাকিব আল হাসানও প্রথম বলেই সাজঘরে ফেরান তামিমকে। ৮ রানে সাজঘরে ফিরতে হয় এই বাঁহাতি ওপেনারকে। তামিমের বিদায়ের পর শাহাদাত দিপুকে শূন্য রানে ফেরান নাবিল সামাদ। দলের অন্যতম ব্যাটার মুমিনুল হক এদিন লম্বা ইনিংস খেলতে ব্যর্থ হন। মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা তার প্রথম ওভারের তৃতীয় বলে শিকারে পরিণত করেন মুমিনুলকে। ১৩ রান করেন তিনি।

এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে প্রাইম ব্যাংক। মুমিনুলের পর মোহাম্মদ মিঠুনকে ৩ রানে ফেরান মাশরাফী। নাসির হোসেনকে ৪ রানে ফেরান সাকিব।দলের বিপাকে একপাশ আগলে রেখে ইয়াসির আলীকে নিয়ে ঝুটি বাঁধেন বিজয়। তবে শতকের পথে থাকা বিজয়কে ৭৩ (৯১) রানে ফেরান আল আমিন। এরপর চিরাগ জানির বলে বোল্ড হয়ে ইয়াসির আলী সাজঘরে ফেরেন ৩৯ রানের ইনিংস খেলে।

শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ৩৩ ওভারও খেলতে পারেনি প্রাইম ব্যাংক। ৩১.২ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে ১৫২ রানে গুটিয়ে যায় প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব। লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের হয়ে ২টি করে উইকেট নেন সাকিব, মাশরাফী ও চিরাগ। ১টি করে উইকেট নেন আল আমীন ও নাবিল সামাদ।

Check Also

দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুটাও তেমন ভালো হয়নি বাংলাদেশ দলের

অ্যান্টিগা টেস্টে প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুটাও তেমন ভালো হয়নি বাংলাদেশ দলের। তবে প্রথম …

Leave a Reply

Your email address will not be published.