Home / খেলার খবর / জাতীয় দলে ফিরছেন আনামুল হক বিজয় এবং নাঈম ইসলাম।

জাতীয় দলে ফিরছেন আনামুল হক বিজয় এবং নাঈম ইসলাম।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের এবারের আসরে দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন জাতীয় দল থেকে বাদ পড়া দুই ব্যাটসম্যান আনামুল হক বিজয় এবং নাঈম ইসলাম। ঢাকা থেকে প্রায় প্রতিটি ম্যাচে দুর্দান্ত ব্যাটিং করছেন এই দুই ক্রিকেটার। যার সুবাদে জাতীয় দলে ফেরারও সুযোগ তৈরি হয়েছে তাদের দুইজনেরই।
figure class=”wp-block-image size-full”>

বিজয়-নাঈম দুজনই আছেন নির্বাচকদের রাডারে। সংবাদমাধ্যমকে এ কথা জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের নির্বাচক প্যানেলের সদস্য আব্দুর রাজ্জাক। ২০১২ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় আনামুল হক বিজয়ের।
figure class=”wp-block-image size-full”>

বাংলাদেশ জাতীয় দলে অভিষেকের পর মাত্র ১৮ ইনিংসের মধ্যে তিনটি সেঞ্চুরি করেছিলেন আনামুল হক বিজয়। যা দেশের ক্রিকেটে এখনও একটি মাইলফলক। এরপর ভালোই চলছিল তার ব্যাটিং। ২০১৫ অস্ট্রেলিয়া ওয়ানডে বিশ্বকাপের আগে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পরপর দুই ম্যাচে ৮০ ও ৯৫ রানের ইনিংস খেলেছিলেন তিনি।
figure class=”wp-block-image size-full”>

বিশ্বকাপেও সুযোগ পেয়েছিলেন অটো চয়েজ হিসেবে। কিন্তু বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়ে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে ফিল্ডিংয়ের সময় ইনজুরিতে পড়ে কপাল পোড়ে আনামুল হক বিজয়ের। এরপর থেকে জাতীয় দলে অনিয়মিত হয়ে পড়েন আনামুল হক বিজয়।
figure class=”wp-block-image size-full”>

২০১৮ সালে দেশের মাটিতে ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজ এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের বিপক্ষে সিরিজে সুযোগ পেলেও নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি বিজয়। সর্বশেষ ২০১৯ সালে কলম্বোতে ওয়ানডে ম্যাচ খেলেন তিনি। এরপর আর জাতীয় দলে সুযোগ পাননি বিজয়।
figure class=”wp-block-image size-full”>

তবে বর্তমান সময়ে ক্যারিয়ার সেরা ফর্মে ধরেছেন আনামুল হক বিজয়। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে এখন পর্যন্ত ৮ ইনিংসে ব্যাট করেছেন তিনি। যেখানে সিটি ক্লাবের বিপক্ষে ৬০ রানের ইনিংস দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করেন বিজয়।
figure class=”wp-block-image size-full”>

এরপরেই রুপগঞ্জ টাইগার্সের বিপক্ষে তুলে নেন সেঞ্চুরি। এছাড়াও শাহিন পুকুরের বিপক্ষে ক্যারিয়ার সেরা ১৮৪ রানের ইনিংস খেলেছেন বিজয়। এবারের ডিপিএলে এনামুল ১১ ম্যাচে করেছেন ৮০৫ রান। যার গড় ৭৩.১৮ ও স্ট্রাইকরেট ৯৭.২২। টুর্নামেন্টে তিনি ২টি সেঞ্চুরিসহ ৬টি হাফসেঞ্চুরিও হাঁকিয়েছেন।
figure class=”wp-block-image size-full”>

অন্যদিকে বিজয়ের সাথে সমান তালে রান করে যাচ্ছেন নাঈম ইসলাম। নাঈম ১১ ম্যাচে ৭৮.২০ গড় ও ৭৬.৭৪ স্ট্রাইকরেটে করেছেন ৭৮২ রান। ২টি সেঞ্চুরির পাশাপাশি তিনি খেলেছেন ৫টি অর্ধশকতের ইনিংসও।
figure class=”wp-block-image size-full”>

এই দুজনেই সে জাতীয় দলের রাডারে আছে বলে জানিয়েছেন আব্দুর রাজ্জাক। সম্প্রতি সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে আব্দুর রাজ্জাক বলেন,
figure class=”wp-block-image size-full”>

“যারা ভালো খেলছে তারা সবাই তালিকাভুক্ত হচ্ছে। এরইমধ্যে তারা (পারফর্মাররা) একটা তালিকার মধ্যে চলে এসেছে। যখন যে ধরনের খেলোয়াড় প্রয়োজন হবে, সে অনুযায়ী তাদের সুযোগ দেওয়া হবে। প্রত্যেক টুর্নামেন্টে একটা তালিকা তৈরি হয়।”
figure class=”wp-block-image size-full”>

রাজ্জাক আরও বলেন, “করোনার কারণে এই তালিকা আমরা করতে পারছিলাম না, তখন অনেক কষ্ট করেছি। দল বেশ ঝামেলার মধ্য দিয়ে গেছে। কোনো খেলোয়াড় খারাপ করছে বা ইনজুরিতে পড়েছে, তখন তার বিকল্প হিসেবে যথেষ্ট খেলোয়াড় আমরা পাচ্ছিলাম না। খেলা শুরু হয়েছে, এখন আশা করি এই সমস্যা হবে না।”

Check Also

দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুটাও তেমন ভালো হয়নি বাংলাদেশ দলের

অ্যান্টিগা টেস্টে প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুটাও তেমন ভালো হয়নি বাংলাদেশ দলের। তবে প্রথম …

Leave a Reply

Your email address will not be published.