Home / খেলার খবর / আইপিএলের জন্য তাসকিনকে চেয়ে মাশরাফিকে ফোন করেছিলেন গৌতম গম্ভীর।

আইপিএলের জন্য তাসকিনকে চেয়ে মাশরাফিকে ফোন করেছিলেন গৌতম গম্ভীর।

আইপিএল খেলার স্বপ্নটা শুধু তাসকিন আহমেদই লালন করেননি। ছেলেকে আইপিএলে দেখার স্বপ্নটা বুকে লালন করছিলেন তাসকিনের বাবা-মা।

গত মার্চের শেষ দিকে সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের সুযোগও পেয়েছিলেন ডানহাতি এই পেসার। কিন্তু বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক সিরিজের কারণে আইপিএল খেলার প্রথম সুযোগটাই হাতছাড়া করতে হয়েছে তাসকিনকে।

সংবাদমাধ্যমে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশের এ তরুণ পেসার জানিয়েছেন, তার জন্য প্রথম ফোন কলটা এসেছিল মাশরাফি বিন মুর্তজার কাছে।

লখনৌ সুপার জায়ান্টসের উপদেষ্টা গৌতম গম্ভীর কল করে তাসকিনকে চেয়েছিলেন। এর বাইরে বিসিবিতে যোগাযোগ করেছিল দলটি। লখনৌর সিইও কল করেছিলেন তাসকিনকে।

দলটির অধিনায়ক কেএল রাহুল ভয়েস মেসেজ দিয়েছিলেন দ্রুতগতির এ পেসারকে। আইপিএলে সুযোগ পাওয়ার বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়েছেন তাসকিন। যোগাযোগের শুরুটা নিয়ে তিনি বলেন, ‘বোর্ডে তো ওরা যোগাযোগ করেছিলই।

আর গৌতম গম্ভীর ভাই মাশরাফি ভাইকে ফোন করেছিল। ওদের দল থেকে সুজন ভাইয়ের (খালেদ মাহমুদ সুজন) সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছিল।

মাশরাফি ভাইকে প্রথম ফোন করেছিল গৌতম গম্ভীর। আমার সাথে যোগাযোগ করেছিল ওদের সিইও। তারপর কেএল রাহুল একটা ভয়েস মেসেজ দেয়।’

পেসার হিসেবে মাশরাফিকে আদর্শ মানেন তাসকিন। মাশরাফিও ছোট ভাই হিসেবে বেশ আদর করেন এ তরুণকে। এবার হাতছাড়া হলেও ভবিষ্যতে আইপিএলে খেলতে চান তাসকিন।

দেশের জন্য এমন সুযোগ ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া কতটা কঠিন ছিল জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘একটু কষ্ট হলেও আমি আসলে খুব সহজে মেনে নিতে পারছি।

দেশের খেলা রেখে সিরিজের মাঝখানে চলে যাওয়া যায় না। এটা হয় না। আইপিএল খেলার ইচ্ছা সবার আছে। আমি যদি বলি আমার ইচ্ছা নাই, এটা মিথ্যা কথা। কিন্তু সিরিজের মাঝখানে চলে যাওয়াটা, ঠিক না।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি বলেছি (বিসিবি কর্তাদের), আমার ইচ্ছা আছে তবে আমি খেলার মাঝখানে যেতে চাই না। তবে আমি এসব হাই প্রোফাইল টুর্নামেন্টে খেলতে চাই। তাছাড়া আমার বাবা-মায়ের ইচ্ছা আছে, আমি ওখানে খেলবো। আশা করি, ভবিষ্যতে সুযোগ আসবে। সবার দোয়া চাই।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *